ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

বিএনপি

পাশ কাটিয়ে গেলে চলবে না: প্রধানমন্ত্রীকে ফখরুল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০১৬
পাশ কাটিয়ে গেলে চলবে না: প্রধানমন্ত্রীকে ফখরুল

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার দেওয়া প্রস্তাবকে পাশ কাটিয়ে গেলে চলবে না বলে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

ঢাকা: সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার দেওয়া প্রস্তাবকে পাশ কাটিয়ে গেলে চলবে না বলে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
 
শনিবার (০৩ ডিসেম্বর) রাতে গুলশানে বিএনপির চেয়াপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ঢোকার মুখে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।


 
এর আগে শনিবার (০৩ ডিসেম্বর) বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ‘গণভবনে’ হাঙ্গেরি ও মরক্কো সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
 
সেখানে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন- ‘নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের ব্যাপারে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যে প্রস্তাব দিয়েছেন, সেটি দেখার এখতিয়ার রাষ্ট্রপতির। ’
 
প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্য প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এটি তিনি (প্রধানমন্ত্রী) সঠিক বলেছেন। নিঃসন্দেহে এটি রাষ্ট্রপতির এখতিয়ার। তবে আমরা আশা করি, এই বিষয়টি রাষ্ট্রপতি যেমন দেখবেন তেমনি বড় দলের এবং সরকারি দলের প্রধান হিসেবে তার (প্রধানমন্ত্রী) দেখার দায়িত্ব যথেষ্ট। পাশ কাটিয়ে গেলে চলবে না।
 
তিনি বলেন, বিগত নির্বাচন যে অবস্থার মধ্য দিয়ে হয়েছে এবং এ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে তিনি (শেখ হাসিনা) যে পার্লামেন্ট গঠন করেছেন, প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন-এটা কতটুকু নৈতিক তা নিয়ে দেশে-বিদেশে প্রশ্ন রয়েছে। সেই জন্য আসন্ন নির্বাচন একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।
 
বর্তমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করে ফখরুল বলেন, আমরা মনে করি বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংকটের ‍মূল বিষয়টি হচ্ছে সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য একটি নির্বাচন। সেটা একমাত্র অনুষ্ঠিত হতে পারে নিরপেক্ষ, যোগ্য ও সাহসী নির্বাচন কমিশনের মাধ্যমে। একই সঙ্গে নির্বাচনকালীন একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন সহায়ক সরকারের মাধ্যমে। সেই প্রস্তাবটি-ই তুলে ধরেছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।
 
তিনি বলেন, আমরা এখনো আশা করি, তাদের (সরকার) শুভ বুদ্ধির উদয় হবে। তারা এই সমস্যাটি উপলব্ধি করে সঠিক পথে এগোবেন। ঐক্যমতের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন।
 
‘মধ্যবর্তী নির্বাচন হবে না। ২০১৯ সালেই নির্বাচন হবে’-প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্য প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, মধ্যবর্তী নির্বাচনের ব্যাপারে আমরা কিন্তু কিছু বলিনি। যেহেতু বিগত নির্বাচনকে আমরা মনে করি প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন সেহেতু আরেকটি নির্বাচন দরকার । সেটা কখন হবে সরকারি দলের যারা আছেন তারাই নির্ধারণ করবেন। তবে অত্যন্ত দ্রুত হওয়া-ই বাঞ্ছনীয়।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১৩২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৩, ২০১৬/আপডেট ০১৩৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪
এজেড/আরআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।