ঢাকা, শনিবার, ৩০ চৈত্র ১৪৩০, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

বিএনপি

স্বাধীনতার প্রথম ডাক দেন ভাসানী, বললেন ফখরুল 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮১৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৮, ২০১৭
স্বাধীনতার প্রথম ডাক দেন ভাসানী, বললেন ফখরুল  ভাসানীর মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল- ছবি: সুমন শেখ

ঢাকা: বাংলাদেশের স্বাধীনতার প্রথম ডাক মজলুম জননেতা মওলানা হামিদ খান ভাসানী দিয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন বিএনপির মহাসচিব  মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার (১৮ নভেম্বর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ দাবি করেন তিনি।  

মজলুম জননেতা মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ৪১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করেন 'ভাসানী স্মৃতি সংসদ'।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা ভুলে যাই যে মওলানা আব্দুল খান হামিদ খান ভাসানীই প্রথম বাংলাদেশের স্বাধীনতার ডাক  দিয়েছিলেন। তিনিই প্রথম পাকিস্তানকে আসসালামু আলাইকুম বলেছিলেন। ১৯৭০ সালের ভয়াবহ ঘূর্ণি ঝড়ের পর যখন পাকিস্তানের কেউ দেখতে আসেনি তখন তিনি পল্টন ময়দানে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন ওরা কেউ দেখতে আসেনি। আসসালামু আলাইকুম পাকিস্তান, আমরা আর আপনাদের সঙ্গে নেই। আর আজকে আমরা বলি একজনই (বঙ্গবন্ধু)  সব করেছেন।
 
তিনি বলেন,  মওলানা ভাসানী তার সারাটা জীবন মানুষের জন্য  উৎসর্গ করেছেন। শোষনকে দূর করবার জন্যে, উপমহাদেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে নিজেকে উৎসর্গ করেছেন।

ফখরুল বলেন,  আমার গতকাল খুব দুঃখ হয়েছে। আমি যখন টাঙ্গাইলের সন্তোস গিয়ে পৌছলাম মওলানা ভাসানীর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে, দেখি সেখানে কোনো আয়োজন নেই। প্রতিবার দেখি সেখানে কিছু আয়োজন হয়। এবার সরকার সেটা করতে দেয়নি। কি দুর্ভাগ্য এই জাতির, যে জাতি সত্ত্বা যাদের মুখ দিয়ে উচ্চারিত হয়েছে, যারা এই অধিকারের জন্য সংগ্রাম করেছেন, যারা তাদের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন আজকে আমরা তাদেরকে আস্বীকার করি।

এসময় আওয়ামী লীগের সমাবেশের বিষয়ে তিনি বলেন, আজকে সমাবেশে সবাইকে আসতে বাধ্য করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ বলছে আজকের সমাবেশ কোনো রাজনৈতিক সমাবেশ না। এটা নাগরিক সমাবেশ। ভালো কথা, কিন্তু আপনারা কি করলেন সমস্ত স্কুল কলেজ বন্ধ করে দিয়েছেন। ছাত্ররা না আসলে শিক্ষকদের চাকরি থাকবে না। ব্যাংকে চিঠি দেওয়া হয়েছে না আসলে পাঁচ দিনের বেতন কেটে নেওয়া হবে। এতে কি শিক্ষা দিচ্ছেন। স্কুলের বাচ্চাদেরকে গাড়ি ভরে সমাবেশে নিয়ে আসা হচ্ছে।

ভাসানী স্মৃতি সংসদের সভাপতি জিয়াউল হক মিলুরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কাজী মুনির হুদার সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন-  সাবেক মন্ত্রী জাকারিয়া খান চৌধুরী, জাতীয় পার্টির ( জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, সাবেক মন্ত্রী নূর মোহাম্মদ খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা নজমুল হক নান্নু, মেহেদী আহমেদ রুমী প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৮, ২০১৭
এসআইজে/বিএস 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad