ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪৩০, ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫

ক্রিকেট

তামিমকে বাদ দেওয়ায় ‘অবিচারের’ কথা মাথায় আসেনি নির্বাচকদের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২৩
তামিমকে বাদ দেওয়ায় ‘অবিচারের’ কথা মাথায় আসেনি নির্বাচকদের

নানা নাটকীয়তার পর শেষ অবধি ঘোষণা করা হয়েছে বিশ্বকাপ স্কোয়াড। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক ভিডিওতে ১৫ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়।

তাতে অবশ্য চমকই থেকেছে। দলে জায়গা হয়নি অভিজ্ঞ ওপেনার তামিম ইকবালের। অনেকদিন ধরেই পিঠের চোটে ভুগছিলেন তামিম।  

এ কারণে এশিয়া কাপে খেলতে পারেননি, ছেড়ে দেন নেতৃত্বও। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফিরে প্রথম ওয়ানডেতে বৃষ্টির কারণে ব্যাট করতে পারেননি। দ্বিতীয় ম্যাচে ৫৮ বলে করেন ৪৪ রান। এরপর তৃতীয় ম্যাচে বিশ্রাম নেন তিনি। পরে তাকা রাখা হয়নি বিশ্বকাপ স্কোয়াডে। মঙ্গলবার দল ঘোষণার পর এর কারণ ব্যাখ্যা করেছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

তিনি বলেন, ‘আপনারা তো বিশ্বকাপের স্কোয়াড পেয়েছেন। তামিমের অনেকদিন ধরে ইনজুরি কনসার্ন। এটা নিয়ে লড়াই করছিল। প্রথম ম্যাচ খেলার পর অভিযোগ এসেছে চোট নিয়ে। ইনজুরি চিন্তা করে তামিমকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রাখা হয়নি। টিম ম্যানেজম্যান্টের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। আলোচনা করে ঝুঁকি নেইনি। বিশ্বকাপ লম্বা টুর্নামেন্ট, এটা বিবেচনায় রাখা হয়েছে। ’ 

এই সিদ্ধান্ত সবার সঙ্গে আলোচনা করেই নেওয়া হয়েছে জানিয়ে নান্নু বলেন, ‘ম্যানেজম্যান্টের সঙ্গে আলোচনা করেই স্কোয়াড তৈরি করা হয়েছে। তামিমের ক্ষেত্রেও একই ব্যাপার ঘটেছে। সার্বিকভাবে সবার সঙ্গে আলোচনা করে এই সিদ্ধান্তটা নেওয়া হয়েছে। সবাই মিলে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মেডিকেল থেকে না জেনে সিদ্ধান্ত নেইনি। ’

দুই উদ্বোধনী ব্যাটার নিয়ে বিশ্বকাপে খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে একজন তানজিদ হাসান তামিমের অভিষেক হয়েছিল এশিয়া কাপে। এখন অবধি তার অভিজ্ঞতা কেবল পাঁচ ম্যাচ খেলার। চার ইনিংস ব্যাট করে ১৬, ১৩, ৫ ও শূন্য রান করেছেন তিনি।  

তাকে কেন নেওয়া হলো এ ব্যাখ্যায় নান্নু বলেন, ‘অনেকগুলো ওপেনার চেষ্টা করেছি। তানজিদ আমাদের হাই পারফরম্যান্স স্কোয়াডে অনেকদিন ছিল। আশা করি বিশ্বকাপে সুযোগ পেলে নিজেকে মেলে ধরতে পারবে। ’ 

গতকাল তামিম বিশ্বকাপে পাঁচ ম্যাচ খেলতে পারেন, এমন একটি গুঞ্জন ছড়ায়। এ নিয়ে নান্নু বলেন, ‘আমরা এ ধরনের জিনিস জানি না। মিডিয়ায় অনেক কথা দেখছি। কিন্তু আমাদের কাছে এ ধরনের কিছু ছিল না। আমাদের কাছে কোনো তথ্য ছিল না পাঁচ ম্যাচ খেলবে। ’

তামিমের নিজের এ ব্যাপারে বক্তব্য কী জানতে চাইলে প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। আমরা ওর সঙ্গে আলোচনা করেছি। সবার সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ’

প্রধান নির্বাচকের সঙ্গে এসেছিলেন আরও বাকি দুই নির্বাচক আব্দুর রাজ্জাক ও হাবিবুল বাশার সুমন। তারা সবাই-ই একসময় দল নির্বাচনে তাদের না রাখায় ‘অবিচারের’ অভিযোগ তুলেছিলেন। তামিমের বেলায়ও কি ‘অবিচার’ হয়েছে? 

উত্তরে নির্বাচক হাবিবুল বাশার বলেন, ‘দল নির্বাচনে যখন বসি। দায়িত্ব থাকে সেরা দল বের করার। আমাদের মনে তামিমকে নিয়ে কোনো সিদ্ধান্তে অবিচারের ব্যাপারটা মাথায় আসেনি। ওর ক্ষমতা নিয়ে আমাদের কোনো সংশয় নেই, আমরা চেয়েছি সুস্থ-সবল তামিমকে পেতে। আমাদের শেষ মুহূর্ত অবধি ভাবতে হয়েছে তাকে নিয়ে। ’

বাংলাদেশ সময় : ২১৩৮ ঘণ্টা, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
এমএইচবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।