ঢাকা, সোমবার, ৩ আষাঢ় ১৪৩১, ১৭ জুন ২০২৪, ০৯ জিলহজ ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

ড্রাইডকের ৪০টি কনটেইনার কিনেছে চসিক

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২১ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২৪
ড্রাইডকের ৪০টি কনটেইনার কিনেছে চসিক ...

চট্টগ্রাম: নগরের পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমে গতি আনতে চিটাগং ড্রাই ডক লিমিটেড (সিডিডিএল) থেকে ৪০টি আবর্জনা ফেলার কনটেইনার কিনেছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক)৷ 

মঙ্গলবার (২১ মে) দুপুরে টাইগারপাসের চসিক কার্যালয়ের বিন্নাঘাস প্রকল্প এলাকায় মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরীর কাছে কনটেইনারগুলো হস্তান্তর করেন সিডিডিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কমডোর মো. বেনজীর মাহমুদ৷ এ ছাড়া, বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট করপোরেশনের (বিআরটিসি) ব্যবস্থাপক মো. মফিজ উদ্দিন চসিকের ৪টি বর্জ্য অপসারণে ব্যবহৃত গাড়ি সংস্কার করে মেয়রের কাছে হস্তান্তর করেন৷ 

মেয়র বলেন, নগর পরিচ্ছন্ন রাখতে আমরা সক্ষমতা বাড়াতে মনোযোগ দিচ্ছি। এজন্য আমরা সরকারি প্রতিষ্ঠান সিডিডিএল থেকে উন্নতমানের ৪০টি কনটেইনার কিনেছি এবং বিআরটিসি থেকে পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমে ব্যবহৃত গাড়ি সংস্কার করছি৷ এর ফলে পরিচ্ছন্ন কাজের মান বাড়বে, বাঁচবে চসিকের ব্যয়৷ 

চসিকের পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমের গতি বাড়াতে নানামুখী কার্যক্রম নেওয়া হয়েছে।

তবে, নগরবাসী পরিচ্ছন্ন চট্টগ্রাম চাইলেও এসটিএস স্থাপন করতে গেলে বিভিন্ন ধরনের বাধা দিচ্ছে। এজন্য আমরা ব্যয়বহুল হলেও আন্ডারগ্রাউন্ড এসটিএস করতে চাই।
বিদ্যমান দুটি ল্যান্ডফিল্ড পূর্ণ হয়ে আসায় ৫০ একর জায়গা কেনার চিন্তাও করছি। বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত একাধিক প্রস্তাব পেয়েছি। প্রস্তাবগুলো আমরা মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি। মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলাম, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা লতিফুল হক কাজমি, কাউন্সিলর নুরুল হক, নিছার উদ্দিন মঞ্জু, মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আকবর আলী, ম্যালেরিয়া ও মশক নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা শরফুল ইসলাম মাহি, সহকারী প্রকৌশলী নাসিরুদ্দিন রিফাত, রুবেল চন্দ্র দাশ, সিডিডিএলের ক্যাপ্টেন আল আমীন চৌধুরী, ক্যাপ্টেন এমটি সাগর, ক্যাপ্টেন সাইফুল মুলক প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২০ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২৪
এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।