ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

মণিপুরের ঘটনায় ভারতীয় হিসেবে লজ্জিত: বিজেপি সাংসদ গৌতম গম্ভীর

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৩ ঘণ্টা, জুলাই ২১, ২০২৩
মণিপুরের ঘটনায় ভারতীয় হিসেবে লজ্জিত: বিজেপি সাংসদ গৌতম গম্ভীর

কলকাতা: মণিপুরে দুই নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও বিবস্ত্র করে হাঁটানোর ঘটনায় উত্তাল গোটা ভারত। তারকা থেকে অভিনেতা প্রত্যেকেই এ ঘটনার কড়া প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন।

এবার প্রকাশ্যে ক্ষোভ জানালেন বিজেপি সংসদ সদস্য তথা সাবেক জাতীয় দলের ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর।

তিনি বলেছেন, মণিপুরের ঘটনা অত্যন্ত লজ্জাজনক। নিজেকে ভারতীয় বলতে লজ্জা লাগছে। ভবিষ্যতে কোনও রাজ্যেই যেন এই ধরনের ঘটনা না ঘটে।

শুক্রবার (২১ জুলাই) একটি অনুষ্ঠানে গৌতম গম্ভীরকে বলতে শোনা গিয়েছে, মণিপুরের মতো ঘটনা একটি সাধারণ ঘটনা নয়। এ ঘটনা ঘটতে না দেওয়া রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর কর্তব্য। এই ঘটনা এখন আর মণিপুরের ইস্যু নয়। এটি জাতীয় ইস্যুতে পরিণত হয়েছে।

তিনি বলেন, গোটা দেশের জন্য এ ঘটনা লজ্জার। দেশের মাথা নিচু হয়ে গেছে। একজন ভারতীয় হিসেবে লজ্জায় আমাদের মাথা ঝুঁকে যাচ্ছে। এ ঘটনা ১৪০ কোটি ভারতীয়দের জন্য লজ্জার বিষয়।

গম্ভীর অভিযোগ করেছেন, বিরোধী দলগুলো এই ঘটনা নিয়ে রাজনীতিতে লিপ্ত হয়েছে। এটা নিয়ে রাজনীতি একেবারেই কাম্য নয়। যদিও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আশ্বাস দিয়েছেন, অপরাধীদের এই জঘন্য অপরাধের জন্য কঠোরতম শাস্তি দেওয়া হবে। কেন্দ্র সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে।

তিনি আরও বলেছেন, ভারতের সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের নিশ্চিত করতে হবে, এরকম ঘটনা যেন আর না ঘটে। প্রত্যেক নারী এবং কন্যার নিরাপদের বিষয়ে নজর রাখতে হবে। এটি দেশের আর কোথাও হওয়া উচিত নয়।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ৩ মে রাজ্যটিতে জাতিগত সহিংসতা শুরু হওয়ার পর থেকে বহু মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন এবং অনেকে আহত হয়েছেন। এরপরই মণিপুরে হাজার হাজার সেনা নামিয়েও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। তারমধ্যে নতুন করে বিতর্কের পারদ চড়েছে ২৬ সেকেন্ড ভিডিওটিকে ঘিরে। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, দুই আদিবাসী নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও বিবস্ত্র করে হাঁটিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় গোটা দেশে ক্ষোভের জন্ম নেয়।

যদিও এ পর্যন্ত এই ঘটনায় মোট চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অপহরণ, সংঘবদ্ধ ধর্ষণ এবং খুনের মামলা রুজু করেছে পুলিশ। মূল অভিযুক্ত হুইরেম হেরোদাস মেতেইয়ের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে উন্মত্ত জনতা, তাদের মধ্যে অধিকাংশই নারী।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪২ ঘণ্টা, জুলাই ২১, ২০২৩
ভিএস/এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।