ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

অর্থসূচক ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো শুরু বৃহস্পতিবার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩, ২০২৩
অর্থসূচক ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো শুরু বৃহস্পতিবার

ঢাকা: বৃহস্পতিবার থেকে তিন দিনব্যাপী (৫-৭ জানুয়ারি) অর্থসূচক ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো শুরু হচ্ছে। পুঁজিবাজার নিয়ে এ রকম উদ্যোগ বিনিয়োগ শিক্ষার একটি বড় প্ল্যাটফর্ম।

এ এক্সপো বিনিয়োগ শিক্ষার প্রসার এবং পুঁজিবাজারের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে সাহায্য করবে।

মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) পল্টনের আলরাজী কমপ্লেক্সে ক্যাপিটাল মার্কেট জার্নালিস্ট ফোরাম (সিএমজেএফ) কার্যালয়ে 'অর্থসূচক ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো-২০২৩’ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানানো হয়।

অর্থসূচক সম্পাদক ও সিএমজেএফের সভাপতি জিয়াউর রহমান বলেন, পুঁজিবাজারে এ এক্সপো বিনিয়োগ শিক্ষার একটি বড় প্ল্যাটফর্ম। এবার পঞ্চমবারের মতো ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বিনিয়োগ শিক্ষার প্রসার এবং পুঁজিবাজারের উন্নয়নে ভূমিকা রাখার লক্ষ্যে ২০১৫ সালে অর্থসূচকের উদ্যোগে এ এক্সপো শুরু হয়। মাঝখানে জাতীয় নির্বাচন এবং করোনাভাইরাসের কারণে ৩ বছর এ এক্সপো অনুষ্ঠিত হয়নি। পুঁজিবাজারের বর্তমান অবস্থার উত্তরণে সংশ্লিষ্ট ইস্যুগুলো নিয়ে আলোচনা খুবই জরুরি। কারণগুলো চিহ্নিত করা গেলে করণীয় ঠিক করা সহজ হবে। ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপোতে অনুষ্ঠেয় বিভিন্ন সেমিনারে অর্থনীতি ও পুঁজিবাজারের নানা ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে। অন্যদিকে এক্সপোতে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের স্টলে নিজেদের পণ্য ও সেবা প্রদর্শন করবে।

এ সময় ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ডিবিএ) প্রেসিডেন্ট রিচার্ড ডি রোজারিও বলেন, আমাদের পুঁজিবাজারে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী বেশি। অর্থসূচকের এ এক্সপো পঞ্চমবারের মতো হচ্ছে। আমাদের বাজারে ৮০ শতাংশ ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের প্রভাব রয়েছে। তবে এসব ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের শিক্ষা কার্যক্রম আনুপাতিক হারে কম। স্টক মার্কেট একটি সংবেদনশীল জায়গা। এখানে অনেক কিছু শেখার আছে। এ ধরনের এক্সপোগুলো পুঁজিবাজারের বর্তমান ও ভবিষ্যতের বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করে থাকে। যেসব প্রতিষ্ঠান ও প্রকারের হাউজ এ এক্সপোতে আসে তারা কি কি সার্ভিস দিতে পারে ও ইনফরমেশন পেতে পারে তা নিয়ে কাজ করে। রিসার্চ টিম ক্লায়েন্টদের হেল্প করে। এ ধরনের এক্সপো পুঁজিবাজারের জন্য পজিটিভ আবহাওয়া তৈরি করে।  

বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) প্রেসিডেন্ট ছায়েদুর রহমান বলেন, তথ্য-উপাত্তের ঘাটতি বা কারও দ্বারা প্রভাবিত হওয়ার কারণে আমাদের বিনিয়োগকারীরা ক্ষতিগ্রস্ত হন। পুঁজিবাজারের উন্নয়নের জন্য পলিসি লেভেলে কাজ করতে হবে। বাজারের উন্নয়নের জন্য বিএসইসি (বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন) স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে কাজ করছে।

তিনি বলেন, বাজার খারাপ হলে ভালো হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, ২০২০ সালে বাজারের খারাপ পরিস্থতি ছিল। অথচ ২০২০ সালে ক্লোজিং ভালো হয়েছে। আমাদের অর্থনীতি যে অবস্থায় আছে, তার চেয়ে বেশি নেতিবাচক প্রচার হয়েছে। হয়তো কেউ কেউ না জেনেও করেছে। আমাদের গার্মেন্টস সেক্টর নিয়ে হতাশা ছিল। অথচ গত মাসে আমাদের রপ্তানি ১০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) রাজধানীর কাকরাইলের আইডিইবি ভবনে এবারের এক্সপো শুরু হবে। এদিন সকাল ১০ট ৩০ মিনিটে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি প্রধান অতিথি হিসেবে এ এক্সপো উদ্বোধন করবেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৩, ২০২৩
এসএমএকে/জেডএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।