ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

শীতবস্ত্রের বিক্রি বেড়েছে ফুটপাতে, কম্বলের চাহিদা বেশ

শাকিল আহমেদ, স্টাফ ফটো করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯২৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৯, ২০২৩
শীতবস্ত্রের বিক্রি বেড়েছে ফুটপাতে, কম্বলের চাহিদা বেশ ফুটপাতের দোকানে কম্বল বিক্রি বেড়েছে। ছবি: শাকিল আহমেদ

ঢাকা: শৈত্যপ্রবাহ চলছে, শীতও পড়েছে বেশ। গত কয়েকদিন ধরে সূর্যের দেখা পাওয়া ছিল কষ্টের।

এই পরিস্থিতিতে শীতবস্ত্রের পাশাপাশি বেড়েছে লেপ-কম্বলের চাহিদা।  

শীত থেকে বাঁচতে মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ছে গরম কাপড়ের দিকে। রাজধানীর বিভিন্ন শপিংমল থেকে শুরু করে ফুটপাতের দোকানগুলোতে গরম কাপড় কিনতে ভিড় করছে লোকজন। দোকানিরা পার করছেন ব্যস্ত সময়।

ফুটপাতে দাম একটু কম হওয়াতে আগ্রহ নিয়ে গরম কাপড় কিনছে নিম্ন মধ্যবিত্তরা। কম্বল থেকে শুরু করে সব ধরনের শীতের পোশাকের দোকানে ক্রেতাদের ভিড়।

শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার ফুটপাতগুলো ঘুরে দেখা গেছে সাধারণ মানুষের ব্যাপক ভিড়। বিশেষ করে কম্বলের দোকানগুলোতে।

রাজধানীর বায়তুল মোকাররম এলাকার ফুটপাতে কম্বলের দোকানি মনোয়ার হোসেন জানান, গত কয়েক দিনের শীতে একটু ভিড় বেড়েছে। শীত যত বাড়বে কম্বলের বিক্রি তত বাড়বে।  

তিনি বলেন, এখানে আমরা দেশি থেকে শুরু করে বিদেশি কম্বল বিক্রি করে থাকি দুই হাজার ৫০০ টাকা থেকে শুরু করে আট হাজার টাকায়।  

গুলিস্তান এলাকার সর্বত্রই দেখা যায়, ফুটপাতের দোকানিরা কয়েকজন কর্মচারী সঙ্গে নিয়ে শীতের কাপড়ের দাম হাঁকছেন। কেউ আবার রেকর্ড বাজাচ্ছেন।

ফুটপাতে উলের টুপি, হাত মোজা, পা মোজা, মাফলার, সোয়েটার, কানটুপিসহ বাচ্চাদের নানা ধরনের শীতের কাপড়ের দোকানে ভিড় দেখা যায়।  

দোকানি আজিজ বাংলানিউজকে জানান, কয়েক দিনের বেশি শীতের কারণে দোকানে বেচাকেনা একটু বেশি। শীত বাড়লে বেচাকেনা আরও বাড়বে আশা করি।

ফুটপাতের আরেক দোকানদার বছির মিয়া বাংলানিউজকে জানান, শীত যত বাড়বে বেচা-কেনা ততই বাড়বে। আগে বেচা-কেনা কম ছিল। কিন্তু গত কয়েকদিনে শীত বেশি হওয়ায় বেচাকেনা বেড়েছে। আশা করছি আগামী কয়েকদিনেও বিক্রি বাড়বে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯১১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৯, ২০২৩
আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।