ঢাকা, সোমবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ মে ২০২৪, ১১ জিলকদ ১৪৪৫

শিক্ষা

চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়াতে এবার ‘সার্টিফিকেটের কফিন’ নিয়ে মিছিল

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২০ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২৪
চাকরিতে প্রবেশের বয়স বাড়াতে এবার ‘সার্টিফিকেটের কফিন’ নিয়ে মিছিল

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: এবার ‘সার্টিফিকেটের কফিন’ তৈরি করে মিছিল করেছেন চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার দাবিতে আন্দোলনকারীরা।  

বুধবার (১৫ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে শুরু হয়ে শাহবাগ ঘুরে মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পয়েন্ট প্রদক্ষিণ করে

মিছিলে ‘মামলা প্রত্যাহার করো’, ‘পুলিশ দিয়ে আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না’, ‘৩০ এর শৃঙ্খল ভেঙে দাও’সহ নানা স্লোগান দেন আন্দোলনকারীরা।

মিছিল শেষে ৩৫ বছর প্রত্যাশী সমন্বয় পরিষদের আহ্বায়ক শরিফুল হাসান শুভ বলেন, আমাদের যে পরিমাণ শিক্ষার্থী মামলা খেয়েছেন, তার কারণে সবার মধ্যে আতঙ্ক কাজ করছে। গত ১১ মের আন্দোলনে পাঁচ হাজারের ওপর শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। আমাদের আন্দোলনে সারাদেশের শিক্ষার্থীদের সমর্থন রয়েছে।  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্দোলনকারীদের তথ্য-যুক্তি বিশ্লেষণ করে শিক্ষার্থীদের পক্ষে সিদ্ধান্ত দেবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।  

আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক খোকন মিয়া বলেন, এই দাবি নিয়ে আমরা বারবার মিথ্যা আশ্বাস পেয়েছি। কিন্তু শিক্ষার্থীরা অনড়। তাদের মামলা দিয়ে দমন করার চেষ্টা করা হয়। শিক্ষামন্ত্রী যে দাবির পক্ষে সুপারিশ করেছেন, আমরা তো তার কথাই বলছি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে শিক্ষার্থীরা ’২৭-২৮ বছরে সার্টিফিকেট পায়’, তার মেয়াদ ৩০ বছর বয়সে শেষ হয়ে যায়। আমরা চাকরি চাইনি, ৩০ বছর পরও চাকরির পরীক্ষায় অংশ নিতে চাই।  

২৯ এপ্রিল জনপ্রশাসনমন্ত্রী বরাবর শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের সুপারিশের পর গত ১১ মে থেকে আবারও আন্দোলনে নেমেছেন ৩৫-প্রত্যাশীরা। এরপর থেকে গণভবন অভিমুখে পদযাত্রা, গণঅনশন, কাফনের কাপড় পরে মিছিলসহ নানা কর্মসচি চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।  

দাবির পক্ষে কোনো সরকারি সিদ্ধান্ত না এলে আগামী শুক্রবার সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। যদিও এ বিষয়ে জনপ্রশাসনমন্ত্রীর ব্যাখ্যার পর সুপারিশের কার্যকারিতা আর নেই বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৮ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২৪
এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।