ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

লক্ষ্মীপুর বাজারে দেখা মিলল মহাবিপন্ন 'গিটার ফিশ'

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫২ ঘণ্টা, জুলাই ৮, ২০২৩
লক্ষ্মীপুর বাজারে দেখা মিলল মহাবিপন্ন 'গিটার ফিশ'

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুর শহরের একটি মাছ বাজারে বিপন্ন প্রজাতির একটি গিটার ফিশ বিক্রি করতে আনা হয়েছে। একজন ব্যবসায়ী মাছটি নিয়ে আসায় লোকজন সেটি দেখতে ভিড় করেন।

মাছটির ওজন ছিল প্রায় ১০ কেজি।  

এ ধরনের মাছ এর আগে লক্ষ্মীপুরের বাজারে দেখা মেলেনি। মাছটি 'গিটার ফিশ' নামে পরিচিত বলে নিশ্চিত করেছেন লক্ষ্মীপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম। তবে কক্সবাজারের জেলেরা একে 'পিতাম্বরী' মাছও বলে থাকেন।

শুক্রবার (৭ জুলাই) রাত পৌনে ১০টার দিকে জেলা শহরের দক্ষিণ তেমুহনী এলাকায় ব্যবসায়ী মহসিনের মাছের ঢালায় বিপন্ন প্রজাতির গিটার ফিশটি দেখা যায়। এ বাজারটি ইলিশসহ নদী এবং সামুদ্রিক মাছের জন্য অন্যতম।  

ব্যবসায়ী মো. কাউসার ও মহসিন জানান, প্রতিদিনের মতো বিকেলে তারা কমলনগর উপজেলার মাতাব্বরহাট মাছঘাটে জেলেদের কাছ থেকে ইলিশ কিনতে যান। সেখানেই ঘাটের দুলাল বেপারীর বাক্সে দুর্লভ প্রজাতির মাছটি দেখতে পান। এটি ভালো দামে বিক্রি করার আশায় তারা ৪ হাজার টাকা দিয়ে কিনে আনেন। রাত ৯টার দিকে মাছটি তারা দক্ষিণ তেমুহনী এলাকায় আনেন। কিন্তু কেনার জন্য কেউই তাদের কাছে এর দাম জানতে চায়নি।  

তবে মাছটি তারা বিক্রি করতে পারবেন বলে আশাবাদী। প্রয়োজনে কেটে কেজি দরে এটি বিক্রি করবেন বলে জানান তারা।  

মো. কাউসার বলেন, প্রায় ১৫ বছর ধরে মাছের ব্যবসা করে আসছি। কখনো কোথাও এ ধরনের মাছ দেখিনি। জেলেরা সাগরের কাছাকাছি গিয়ে মাছ শিকার করে। সেখানে ইলিশের পাশাপাশি অন্যান্য সামুদ্রিক মাছও পাওয়া যায়৷ তেমনি কোনো এক জেলের জালে গিটার ফিস নামে মাছটি ধরা পড়েছে। তিনি (জেলে) এটি মাতাব্বরহাট মাছঘাটে বিক্রি জন্য এনেছেন। ৪ হাজার টাকা দিয়ে কেনা মাছটি ৫০০ টাকা লাভে হলেও বিক্রি করবেন বলে জানান তিনি কাউছার। মাছটিতে প্রচুর তেল রয়েছে।  

দক্ষিণ তেমুহনী এলাকার ব্যবসায়ী ফারুক হোসেন বলেন, এখান থেকে আমি ৬ বছর ধরে হোটেলের জন্য মাছ কিনি। কখনো এতো দুর্লভ প্রজাতির মাছ চোখে পড়েনি। এটি কেউ কিনবে কি না তা বলতে পারছি না। তবে মাছটি এখানে আনার পর থেকেই উৎসুক লোকজন এসে দেখে গেছে।  

লক্ষ্মীপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, বিপন্ন প্রজাতির এ মাছটি গিটার ফিশ নামে পরিচিত৷ এটি মূলত সামুদ্রিক মাছ। কয়েক বছর আগে কক্সবাজারে বঙ্গোপসাগরে জেলেদের জালে একটি গিটার ফিশ ধরা পড়েছিল। লক্ষ্মীপুরের জেলেরা বঙ্গোপসাগরের কাছাকাছি গিয়ে ইলিশ শিকার করে। ধারণা করা হচ্ছে জোয়ারের পানির টানে মাছটি নদীতে এলে জেলেদের জালে ধরা পড়ে।  

তিনি আরও বলেন, গিটার ফিশ লম্বা ৩ মিটার পর্যন্ত হয়। এর দেহ চ্যাপ্টা আকৃতির ও বাদামি বা ধূসর রঙের দেখতে। এটি শার্ক গোত্রের মাছ। তবে শার্কের মতো ভয়ংকর নয়। লক্ষ্মীপুরের মেঘনায় এর আগে কোথাও এ ধরনের মাছ পাওয়া যায়নি।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫০ ঘণ্টা, জুলাই ০৮, ২০২৩
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।