ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

ফিচার

পোড়াদহ মেলা আজ বউদের দখলে  

কাওছার উল্লাহ আরিফ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২৪
পোড়াদহ মেলা আজ বউদের দখলে  

বগুড়া: ঐতিহ্যবাহী পোড়াদহ মেলা আজ বউদের দখলে। অনেকে দলবেধে আবার কেউ বা দলছুট হয়ে ঘোরাঘুরি করছেন মেলার একদিক থেকে অন্যদিক।

দোকানে-দোকানে ভিড় করে পছন্দের জিনিসটি কিনছেন কেউ কেউ।

বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে পোড়াদহ মেলার স্থানেই শুরু হয়েছে বউমেলা, মেলা চলবে সন্ধ্যা পর্যন্ত। বগুড়ার গাবতলী উপজেলার ঐতিহ্যবাহী এ বউমেলায় গিয়ে এমন দৃশ্যই চোখে পড়েছে।  

এর আগে বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) এ স্থানে বসেছে মূল মেলা।

মেলার প্রথম দিনের বেচাকেনায় প্রাধান্য পেয়েছিল মাছ ও মিষ্টিসহ বিভিন্ন সামগ্রী। তবে সেখানে সিংহভাগ ক্রেতা-বিক্রেতাই পুরুষ। পরদিন একই স্থানে সকাল থেকে শুরু হয় বউমেলা। চলবে সন্ধা পর্যন্ত। আর এ মেলার বেশিরভাগ ক্রেতা-বিক্রেতাই নারী। ঐতিহ্যবাহী পোড়াদহ মেলা শুরু হওয়ার পর থেকেই চলে আসছে এ রীতি। এমনটাই জানা যায়।

এদিকে মাছের মেলা শেষ হওয়ার পর রাতের মধ্যেই খেলনা ও কসমেটিক দোকানিরা ব্যবসায় অনেকটা পরিবর্তন আনেন। নারীদের সাজসজ্জার রকমারি পণ্য দিয়ে সাজানো হয় দোকানগুলো।  

মেলায় গিয়ে দেখা যায়, দোকানে দোকানে গিয়ে বিভিন্ন জিনিস নেড়েচেড়ে দেখছেন নারীরা। খেলনা ও রকমারি কসমেটিকস ছিল তাদের কেনাকাটার তালিকায়। পছন্দের পণ্য চোখে পড়ামাত্র শুরু হয়ে যায় দর কষাকষি। এভাবে বউমেলায় গল্প আড্ডার তালে তালে চলে বউদের কেনাকাটা।

মেলায় বাহারি সব কসমেটিকসের পসরা সাজিয়ে বসেছেন নারী দোকানিরা। পাশাপাশি কিছু দোকানে পুরুষ বিক্রেতাও নজরে পড়েছে। খেলনার দোকানগুলোর চিত্রও ছিল প্রায় একই রকম।  

এসব দোকানে ছিল নারীদের উপচেপড়া ভিড়। পাশাপাশি কিশোরী-তরুণীরা কেনাকাটায় পিছিয়ে নেই। শেষ মুহূর্তে পছন্দের জিনিস কিনতে তাদের দোকানে দোকানে ঘুরতে দেখা যায়। দেখা যায়, দরদাম করতে। দুপুরের মধ্যে মেলা-এলাকা বিভিন্ন বয়সী নারীদের পদভারে মুখর হয়ে ওঠে।

শাহনাজ আক্তার, জ্যোতি, নুসরাত নামে কয়েকজন নারী বাংলানিউজকে জানান, পোড়াদহ মেলায় প্রথমদিন পুরুষদের প্রচণ্ড ভিড় থাকে। এদিন মাছ-মিষ্টি বেচা-বিক্রিতে লাখো মানুষের ঢল নামে। এ কারণে মেলায় যাওয়া হয়ে ওঠে না। পরদিনের মেলা শুধুই নারীদের জন্য। এদিনকে বলা হয় বউমেলা। বউমেলায় পুরুষ আসে না বললেই চলে। মেলার রীতি অনুযায়ী এদিন মেলায় পুরুষদের আসতে মানা। তাই নারীদের জন্য সুবিধা হয়। তারা মেলায় আসেন। ঘোরাঘুরি করেন। স্বজনদের সঙ্গে গল্প করেন। পছন্দের জিনিসগুলো কিনে নেন। অনেকে নাগরদোলায় চড়ছেন।

তারা বলেন, এ মেলা থেকে প্রত্যেক বছর তারা বিভিন্ন কসমেটিকস ও ইমিটেশনের গহনা কেনেন। পাশাপাশি ছোটদের জন্য খেলনা ও সাংসারিক প্রয়োজনে ব্যবহার করা যায়-এমন সব জিনিসপত্রও কেনেন। এছাড়া মেলায় আসা নাগরদোলা, মোটরবাইক খেলা তাদের বেশ প্রিয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২৪
কেইউএ/এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad