ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

স্বাস্থ্য

‘শিগগিরই বিএসএমএমইউতে বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট শুরু হবে’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২৩
‘শিগগিরই বিএসএমএমইউতে বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট শুরু হবে’

ঢাকা: শিগগিরই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন উপাচার্য ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ।

সোমবার (২ জানুয়ারি) দুপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি-ব্লকে হেমাটোলজি বিভাগের শ্রেণিকক্ষে হেমাটোলজি বিভাগের বর্ষবরণ ও কর্মপরিকল্পনা অনুষ্ঠান আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালের ৮ অক্টোবর এখানে এসে একটি ভাষণে বলেছিলেন, রক্ত শুধু দেওয়া নয়, রক্তের ওপর গবেষণা করতে হবে। গবেষণার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে অচিরেই বায়োব্যাংক প্রতিষ্ঠা করা হবে। আমার সময়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে বায়োব্যাংক প্রতিষ্ঠা ও বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট (বিএমটি) শুরু করতে চাই। এখানে চলমান লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট সফলভাবে সম্পন্ন হবে বলে আশা করছি। এজন্য সবার দোয়া চাই।  

তিনি বলেন, আমরা কিডনি ট্রান্সপ্ল্যান্ট নিয়মিত করছি। সুপার স্পেশালাইজড চালু করছি। হেমাটোলজি বিভাগে রোগীদের চিকিৎসায় সময় বেশি লাগার কারণে ডে কেয়ার সেন্টার চালু করার চিন্তা-ভাবনা করছি। সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে হেমাটোলজি বিভাগ খোলা ও বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছি। আমরা হেমাটোলজিক্যাল টেস্ট, নিউবর্ন স্ক্রিনিং, এবনরমালিটি ডিটেকশন, ফিস্ট টেস্ট, কোলোরেক্টাল কার্সিনোমা রোগের ওপর গবেষণা করছি।

ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, গবেষণার জন্য বাজেটের বাইরে আরও ২৫ কোটি টাকা দেওয়া হবে।  বাংলাদেশ  স্মার্ট বাংলাদেশ হচ্ছে। পদ্মা সেতু ও মেট্রোরেল বাংলাদেশের বড় অর্জন। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য ইয়াং জেনারেশন চিকিৎসকদের টেলি কনসালটেশন, কোলাবোরেশন ট্রেনিং প্রোগাম এবং টেলি হেলথে অংশগ্রহণ করতে হবে। এসব যদি করতে পারি তবে আমরা স্মার্ট সিটিজেন হবো, স্মার্ট বাংলাদেশ হবে এবং স্মার্ট হেলথ হবে। এ বছর বিএমটি করার পাশাপাশি রোবটিক সার্জারিও চালু করবো। রোবটিক সার্জারি, স্টেম সেল থেরাপি ও আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ই হল স্মার্ট বাংলাদেশের অংশ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হেমাটোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সালাউদ্দিন শাহ।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমদ, মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মাসুদা বেগম, হেমাটোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুল আজিজ, অনকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. নাজির উদ্দিন মোল্লাহ, হেমাটোলজি বিভাগের শিক্ষক, চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও নার্সরা উপস্থিত ছিলেন।

এতে হেমাটোলজি বিভাগের বিগত বছরের কর্মকাণ্ড তুলে ধরা হয়। একইসঙ্গে নতুন বছরের কর্মপরিকল্পনা উপস্থাপন করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০২, ২০২২
আরকেআর/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।