ঢাকা, সোমবার, ৯ বৈশাখ ১৪৩১, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১২ শাওয়াল ১৪৪৫

স্বাস্থ্য

৫ কোটি মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা দিয়েছে বিডব্লিউএইচসি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৫, ২০২৩
৫ কোটি মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা দিয়েছে বিডব্লিউএইচসি

ঢাকা: গত ৪০ বছরে (১৯৮০-২০২০) বাংলাদেশ উইমেন্স হেলথ কোয়ালিশন (বিডব্লিউএইচসি) মহিলা ও শিশু স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে কাজ করে আসছে। এ পর্যন্ত সংস্থাটি প্রায় ৫ কোটি ২১ লাখ ৯৬ হাজার মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা দিয়েছে সংস্থাটি।

বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে ‘নারী প্রজনন স্বাস্থ্যসেবা এবং উন্নয়নে বিডব্লিউএইচসি’র গৌরবময় চার দশক উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের চেয়ারপার্সন নাসিমুন আরা হক এ তথ্য জানান।

নাসিমুন আরা হক বলেন, ১৯৮০ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত বিডব্লিউএইচসি মহিলা ও শিশু স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে কাজ করে আসছে। এই পর্যন্ত স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া হয়েছে ৫ কোটি ২১ লাখ ৯৬ হাজার ০৪৯ জন সেবাগ্রহীতাকে। এর মধ্যে মহিলাদের নিরাপদ মাসিক নিয়মিতকরণ (এমআর) এবং এমআর পরবর্তী সেবা দেওয়া হয়েছে ২ লাখ ৮২ হাজার ১০৮ জন নারী, পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি সেবা দেওয়া হয়েছে ১৮ লাখ ৯৫ হাজার ৩৩৫ জন নারী ও পুরুষকে, প্রজনন স্বাস্থ্যসেবা ১ কোটি ৬ লাখ ৩০ হাজার ৯৮৭ জন, বিভিন্ন প্রকার টিকা ২ কোটি ৩ লাখ ৮০ হাজার ৩৬৯ জন, মাতৃত্বকালীন সেবা নিয়েছে ৪ লাখ ২৯ হাজার ৫০২ জন, কাউন্সেলিং সেবা দেওয়া হয়েছে ১ কোট ১৭ হাজার ১০২ জনকে। এছাড়া বিডব্লিউএইচসি মোট ৭ কোটি ৮৮ লাখ ২২ হাজার ৩৫৯ জনকে স্বাস্থ্যসেবাসহ স্বাস্থ্য শিক্ষা দিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে সাফল্যের সঙ্গে স্বাস্থ্যসেবার ধারাবাহিকতায় বিডব্লিউএইচসি অর্জন করেছে অসংখ্যা পুরস্কার। পাশাপাশি মানসম্মত সেবার জন্য হাজারো মানুষের বিশ্বাস ও আস্থা অর্জন করেছে। বিডব্লিউএইচসি ভবিষ্যতে সুবিধাবঞ্চিত জনসাধারণের প্রয়োজনে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে একাধিক স্বাস্থ্যসেবা স্থাপন করবে, যেখানে উন্নত স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারপারসন জাহানারা সাদেক, কোষাধ্যক্ষ কামরুন নাহারসহ কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৫, ২০২৩
ইএসএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।