ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

স্বাস্থ্য

সচেতনতা বৃদ্ধিসহ জাতীয় ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণ নীতির দাবি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২৩
সচেতনতা বৃদ্ধিসহ জাতীয় ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণ নীতির দাবি

ঢাকা: বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও ক্যান্সার সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে হবে। আর এই কাজ করতে সর্বপ্রথম জাতীয় ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণ নীতি তৈরি দাবি জানানো হয়েছে।


 
জরায়ুমুখের ক্যান্সার সচেতনতা দিবস উপলক্ষে শনিবার (১৪ জানুয়ারি) মাসব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা এ দাবি জানান।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) ও মার্চ ফর মাদার এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। শনিবার এ উপলক্ষে ডিআরইউ প্রাঙ্গণ থেকে পদযাত্রা বের করা হয়। পরে সাগর-রুনি মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বক্তারা বলেন, দেশে অতীতের চেয়ে ক্যান্সার চিকিৎসায় অগ্রগতি হয়েছে। তবে এই চিকিৎসার ফলোআপ চেকআপ ব্যবস্থায় একেবারেই পিছিয়ে। বর্তমানে জরায়ুমুখের ক্যান্সার জনসচেতনতা সম্পর্কে যে অগ্রযাত্রার সূচনা হলো এই ধারা অব্যহত থাকলে দেশ থেকে দ্রুততম সময়ে এই রোগ মুক্তি সম্ভব।

জননীর জন্য পদযাত্রার প্রধান সম্বয়কারী অধ্যাপক ডা. হাবিবুল্লাহ তালুকদার রাসকিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট গাইনি চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. টি এ চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডিআরইউর কল্যাণ সম্পাদক তানভীর আহমেদ।

আরও বক্তব্য রাখেন পরিকল্পনা কমিশনের সাবেক সদস্য আবুল কালাম আজাদ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সাবেক উপদেষ্টা ডা. মোজাহেরুল হক, ডিআরইউ সভাপতি মুরসালিন নোমানি, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হাসান সোহেল, মাতুয়াইল মা ও শিশু স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সাবেক নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. শারিয়া তাসনিম, বিএসএমএমইউর গাইনি বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সাবেরা খাতুন, ডিআরইউর দপ্তর সম্পাদক কাওসার আজম, কার্যনির্বাহী সদস্য কিরণ শেখ, জন হপকিনস ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ডা. হালিদা খানুম আক্তার।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২৩
টিএ/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।