ঢাকা, শুক্রবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪৩০, ০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫

স্বাস্থ্য

ডেঙ্গুতে ১৪ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ২৪২৫

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২৩
ডেঙ্গুতে ১৪ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ২৪২৫

ঢাকা: গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সারা দেশে আরও দুই হাজার ৪২৫ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

শনিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোলরুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গুবিষয়ক এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে দুই হাজার ৪২৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এরমধ্যে ঢাকাতে ৭৫১ জন এবং ঢাকার বাইরে এক হাজার ৬৭৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে মোট এক হাজার ৯৭৮ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছে। এরমধ্যে ঢাকায় বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে ৬৪৭ জন এবং ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে থেকে এক হাজার ৩৩১ জন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে আটজন ঢাকাতে এবং ছয়জন ঢাকার বাইরে।

এ বছর ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ৯৮৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ঢাকাতে ৬৩৯ জন এবং ঢাকার বাইরে ৩৫০ জন।

চলতি বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছে দুই লাখ তিন হাজার ৪০৬ জন। এরমধ্যে ঢাকাতে ৮৩ হাজার ২২২ জন ও ঢাকার বাইরে এক লাখ ২০ হাজার ১৮৪ জন।

চলতি বছরে এ পর্যন্ত মোট এক লাখ ৯২ হাজার ৪৫৮ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছে। এরমধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে ৭৯ হাজার ২০৪ জন এবং ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতাল এক লাখ ১৩ হাজার ২৫৪ জন।

বর্তমানে সারা দেশে মোট নয় হাজার ৯৫৯ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি আছে। এরমধ্যে ঢাকাতে তিন হাজার ৩৭৯ জন এবং ঢাকার বাইরে ছয় হাজার ৫৮০ জন।

এতে আরও বলা হয়, চলতি বছরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার হার শতকরা ৯৫ শতাংশ। হাসপাতালে ভর্তি থাকার হার পাঁচ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার শূন্য দশমিক পাঁচ শতাংশ।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ৬২ হাজার ৩৮২ জন এবং ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ২৮১ জন মারা যায়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২৩
আরকেআর/এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।