ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

ভারত

ত্রিপুরায় রথযাত্রা শুরু করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৫, ২০২৩
ত্রিপুরায় রথযাত্রা শুরু করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ 

আগরতলা (ত্রিপুরা): ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের উপস্থিতিতে বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) ত্রিপুরায় শুরু হলো বিজেপির জন বিশ্বাস যাত্রা। উত্তর জেলার ধর্মনগর থেকে এই যাত্রার সূচনা হয়।

এই উপলক্ষে এক সভার আয়োজন করা হয় ধর্মনগরের বি বি আই ময়দানে।  

সভায় অমিত শাহ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা প্রদেশ বিজেপি সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য, মুখ্যমন্ত্রী অধ্যাপক ডা মানিক সাহা, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বর্তমান সাংসদ বিপ্লব কুমার দেব, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রতিমা ভৌমিক, দলের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রভারী সম্বিত পাত্র, সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা, মন্ত্রী সান্তনা চাকমাসহ অন্যান্য নেতারা।

সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে অমিত শাহ বলেন, ২০১৮ সালে সবাইকে সঙ্গে নিয়ে চলো পাল্টাইয়ের ডাক দেওয়া হয়েছিল এবং সবার চেষ্টায় রাজ্য থেকে দীর্ঘ বছরের বাম শাসন থেকে ত্রিপুরা রাজ্যকে মুক্ত করা হয়েছে। অথচ নির্বাচনের আগে রাজ্যে বিজেপির একজনও বিধায়ক ছিল না, কিন্তু ২০১৮ এর নির্বাচনের পর দেখা যায় পূর্ণ জনমত নিয়ে বিজেপি ক্ষমতায় এসেছে।  
তিনি আরও বলেন বাম আমলে যেকোনো কাজের জন্য ক্যাডারদের কাছে যেতে হতো। কিন্তু এখন কোনো কাজের জন্য কারো কাছে যেতে হয় না। এই পরিবর্তন এসেছে বিজেপির জন্য। বর্তমান সরকার জনগণের কল্যাণে যে কাজ করেছে, তার উপর ভিত্তি করে রাজ্যকে আগামী দিনে আরও সমৃদ্ধ করা হবে। সব যুবকের জন্য কর্মসংস্থান, নারীদের জন্য সুনিশ্চিত সুরক্ষা এবং জনজাতি অংশের মানুষের উন্নতি, প্রতিটি ঘরে পরিশ্রুত পানীয় জলসহ সমৃদ্ধ ত্রিপুরা গড়ার আহ্বানকে সামনে রেখে এই যাত্রা শুরু হয়েছে।

অমিত শাহ বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রাজ্যবাসীর জন্য হীরা মডেল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, রাজ্যের দুই মুখ্যমন্ত্রী তা পূরণ করেছেন। হীরার সঙ্গে মানিকও দেওয়া হয়েছে।  

সভা শেষলগ্নে পতাকা নেড়ে জন বিশ্বাস রথ যাত্রার সূচনা করেন অমিত শাহ। এর পর রথকে সামনে রেখে গাড়ির বিশাল মিছিল নিয়ে বিভিন্ন বিধানসভা এলাকায় ঘুরতে থাকেন দলের নেতাকর্মীরা। এই রথযাত্রা চলবে আগামী ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত, সেদিন আগরতলায় এক বিশাল সভার মধ্য দিয়ে শেষ হবে। সমাপনী সভায় উপস্থিত থাকবেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা।

ধর্মনগরের সভার শেষে অমিত শাহসহ অন্যান্য নেতারা চলে যান দক্ষিণ জেলার সাবরুম এলাকায়। সেখানেও একইভাবে একটি সভা ও রথযাত্রার সূচনা করা হয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৫, ২০২৩ 
এসসিএন/আরএইচ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।