ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

আন্তর্জাতিক

আল-আকসা চত্বরে ইসরায়েলি উগ্র ডানপন্থী মন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪০৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩, ২০২৩
আল-আকসা চত্বরে ইসরায়েলি উগ্র ডানপন্থী মন্ত্রী

ইসরায়েলের উগ্র ডানপন্থী জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রী ইতামার বেন-গভির মুসলমানদের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান বলে বিবেচিত পবিত্র আল-আকসা মসজিদ চত্বরে প্রবেশ করেছেন। এ ঘটনা দৃশ্যত ফিলিস্তিনিদের প্রতি নজিরবিহীন উসকানি বলে মনে করা হচ্ছে।

ডেইলি সাবাহ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) জেরুজালেমে গিয়ে আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণ পরিদর্শন করেন বেন গভির। তার এ পদক্ষেপ নিয়ে নিন্দা জানিয়েছেন ফিলিস্তিনি ও কিছু ইসরায়েলি রাজনীতিবিদ। তারা বিষয়টিকে নিছক উস্কানিমূলক বলে মন্তব্য করেছেন। তারা এও বলছেন, বেন গভিরের এমন সিদ্ধান্ত যেকোনো সময় সহিংসতা নিয়ে আসতে পারে।

ইসরায়েলের বিরোধীদলীয় নেতা ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইয়ার ল্যাপিড টুইটারে এ ব্যাপারে পোস্ট করেন। তিনি লিখেছেন, বেন-গভিরের এই ধরনের সফর সহিংসতাকে উস্কে দেবে। তাকে অবশ্যই টেম্পল মাউন্টে (আল-আকসা মসজিদ কমপ্লেক্স) যাওয়া উচিত না। এটি একটি ইচ্ছাকৃত উস্কানি হবে। এতে বহু জীবন বিপদে পড়বে, অনেকে প্রাণ হারাবে।

ওয়াইনেট নিউজ ওয়েবসাইট তাদের প্রতিবেদনে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে ইতামার বেন-গভির আল আকসা চত্বর পরিদর্শনের ছবি প্রকাশ করে। তবে তিনি কথিত টেম্পল মাউন্টে উপাসনা করেছিলেন কিনা তা জানা যায়নি। উল্লেখ্য, আল আকসায় মুসলিম ব্যতীত অন্য কারও প্রার্থনা করার অনুমতি নেই।

ফিলিস্তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, উগ্রপন্থী মন্ত্রী বেন-গভির এ সফর নজিরবিহীন উস্কানি ও বিপজ্জনক সংঘাত সৃষ্টির রসদ। আল আকসায় তার সফরের নিন্দাও করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

গতকাল সোমবার (২ জানুয়ারি) বেন-গভিরের সম্ভাব্য সফরের খবরে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ ইসরায়েলের বিরুদ্ধে সতর্কতা জারি করেছিল। ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র নাবিল আবু রুদেনেহ বলেছেন, আল-আকসা মসজিদে স্থিতাবস্থার জন্য বারবার ইসরায়েলি হুমকি ‘সবার জন্য গুরুতর পরিণতি বয়ে আনবে। ’

তিনি সতর্ক করে বলেন, ইসরায়েলি নেতাদের উস্কানি বন্ধ করতে যুক্তরাষ্ট্রের চাপ দেওয়া উচিৎ। তারা যতি ব্যর্থ হয় পরিস্থিতি ‘নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে। ’

সপ্তাহে বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর নেতৃত্বে গঠিত সরকারের অংশ হিসেবে শপথ নিয়েছেন বেন-গভির। উগ্র ডানপন্থী ও ধর্মীয় দলগুলো তাদের সরকারের অংশ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩, ২০২২
এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।