ঢাকা, সোমবার, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২২ শাবান ১৪৪৫

আন্তর্জাতিক

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ: সোলেদার শহর নিয়ে বিরোধপূর্ণ দাবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০০৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২৩
রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ: সোলেদার শহর নিয়ে বিরোধপূর্ণ দাবি

রাশিয়ার ভাড়াটে ওয়াগনার গ্রুপ পূর্ব ইউক্রেনের সোলেদার শহরটি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার দাবি করেছে। তবে বিষয়টি অস্বীকার করেছে কিয়েভ।

তারা বলছে, ইউক্রেনীয় সৈন্যরা এখনও সোলেদার শহর নিজেদের নিয়ন্ত্রণে ধরে রেখেছে।

ইউক্রেনের ডেপুটি প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হান্না মালিয়া বলেছেন, ‘রাশিয়ার ব্যাপক আক্রমণ সত্ত্বেও ইউক্রেনীয় সৈন্যরা এখনও সোলেদার শহর নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখেছে। ’

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন,‘সোলেদার দখল করতে প্রবল লড়াই চলছে। শত্রুপক্ষ তাদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি উপেক্ষা করে সক্রিয়ভাবে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। ’

‘আমাদের যোদ্ধারা সাহসিকতার সঙ্গে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ধরে রেখেছে। ’

সোলেদার অত্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ একটি শহর। এটি বাখমুত থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। সেখানে উভয়পক্ষই বড় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। খবর- আল জাজিরা

এদিকে যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, ‘সম্ভবত’ শহরটির অধিকাংশ এলাকাই রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে।

লবণের খনি-সমৃদ্ধ প্রায় ১০ হাজার মানুষের শহর সোলেদারের অবস্থান বাখমুত অনেকটা পাশেই। এটির দখল রুশ বাহিনীর হাতে চলে গেলে বাখমুত দখলের যুদ্ধে তারা সুবিধাজনক অবস্থানে চলে যাবে।

পূর্ব ইউক্রেনের ডনবাস অঞ্চলের দোনেৎস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলের জন্য রসদপত্র সরবরাহের একটি কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ পথের ওপর বাখমুত শহরটির অবস্থান।

এর নিয়ন্ত্রণ দখল করতে পারলে রাশিয়া জায়গাটিকে ক্রামাটরস্ক ও স্লোভিয়ানস্কের মতো দুটি বড় শহরের দিকে এগিয়ে যাবার জন্য একটা ভিত্তি তৈরি করতে পারবে। এই যুদ্ধে রুশ বাহিনীর সাথে মার্সেনারি বাহিনী ওয়াগনারের যোদ্ধারাও লড়াই করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১০০৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২৩
এমএইচএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।