ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

আন্তর্জাতিক

‘বাচ্চারা ধ্বংসস্তূপের নিচে জমে যাবে’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩
‘বাচ্চারা ধ্বংসস্তূপের নিচে জমে যাবে’

শক্তিশালী ভূমিকম্পে তুরস্ক ও সিরিয়ায় কয়েক হাজার মানুষ হতাহত হয়েছেন। সোমবার ভোরের দিকে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে।

রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৮।

এই ভূমিকম্পে দুই দেশের বেশ কয়েকটি শহরে অনেক ভবন ধসে পড়েছে। অনেকে ভবনের ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকে পড়েছেন। অনুসন্ধান ও উদ্ধারকারী দল উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।  

দিয়ারবারকিরে কুর্দিশ বৃদ্ধ এক নারীকে দেখা যায় বিলাপ করছেন। ভগ্নীপতি, ভাতিজি ও ভাতিজা ভবনের নিচে আটকা পড়েছেন। তিনি তাদের জন্য অপেক্ষা করছেন।

তার কিছু তরুণ প্রতিবেশী তাকে সমবেদনা জানাচ্ছিলেন। তারা বলেন, উদ্ধারকারীরা একজনকে কিছুক্ষণ আগেই উদ্ধার করেছেন। তোমার পরিবারকেও উদ্ধার করবেন।

তবে এই নারী খুব বেশি আশা করছেন না, কারণ তার পরিবার ১২ তলা ভবনের একেবারে নিচতলায় বাস করতেন।  

তিনি বলেন, তারা একেবারে নিচতলায় ছিল, ঘুমাচ্ছিল। আমি জানি না, কেউ তাদের পর্যন্ত পৌঁছাতে পারবে কি না... খুবই ঠাণ্ডা। বাচ্চারা ধ্বংসস্তূপের নিচে ঠাণ্ডায় জমে যাবে।  

হঠাৎই সেখানে লোকজন তালি দেওয়া শুরু করে। একজনকে উদ্ধার করা গেছে। তবে ওই ব্যক্তি ওই বৃদ্ধার আত্মীয় নন। তবে কী! একজনকে উদ্ধার করা গেছে।  

খুবই শীত পড়েছে, বৃষ্টি হচ্ছে। একের পর এক কম্পনের কারণে কেউ নিজের বাড়িতে যেতে পারছেন না।  

দিয়ারবারকিরে কমপক্ষে সাতটি ভবন ধসে পড়ছে। ৩৩ জন নিশ্চিতভাবেই মারা গেছেন। ১২ জনকে ধ্বংসস্তূপ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।
বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩
আরএইচ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।