ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

আন্তর্জাতিক

খাসোগি ইস্যুতে কংগ্রেসের মুখোমুখি সিআইএ প্রধান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮০৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৫, ২০১৮
খাসোগি ইস্যুতে কংগ্রেসের মুখোমুখি সিআইএ প্রধান জিনা হ্যাসপেল। 

সৌদি সাংবাদিক খাসোগি জামাল হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে এবার মার্কিন কংগ্রেসের মুখোমুখি হয়েছেন সিআইএ প্রধান। খাসোগির ঘটনায় সংস্থাটির তদন্ত ফলাফল সম্পর্কে কংগ্রেসকে অবহিত করেছেন এর প্রধান জিনা হ্যাসপেল। 

মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) কংগ্রেসের আন্তর্জাতিক বিষয়ক কমিটির শুনানিতে উপস্থিত হয়ে সিআইএ এর তদন্ত সম্পর্কে ব্রিফ করেন জিনা হ্যাসপেল। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয়নি কংগ্রেসের পক্ষ থেকে।

 

জিনা হ্যাসপেলের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পর সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে ‘উন্মাদ’ ও ‘বিপজ্জনক’ বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন সিনেটর লিন্ডসে গ্রাহাম।  

রিপাবলিকান এ সিনেটর বলেন, মোহাম্মদ বিন সালমানের অধীনস্ত মানুষরা এ হত্যাকাণ্ড ঘটায়নি এমন সিদ্ধান্ত মেনে নিতে হলে আপনাকে ইচ্ছাকৃতভাবে অন্ধ হতে হবে।

খাসোগি হত্যার সঙ্গে সালমানের জড়িত থাকার বিষয়ে আগের থেকে আরও ‘নিশ্চিত’ হয়েছেন বলে জানান ডেমোক্রেট দলের আরেক সিনেটর বব মেনেন্দেজ।  

তুরস্কের সৌদি দূতাবাসের অভ্যন্তরে খাসোগি জামাল হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ‘জড়িত থাকতে পারেন’ বলে প্রতিবেদন দেয় সিআইএ। এ ঘটনায় সৌদি কর্তৃপক্ষ ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলেও যুবরাজের সম্পৃক্ততা অস্বীকার করা হয়।  

তবে সিআইএ তাদের প্রতিবেদনে জানায়, এ  হত্যাকাণ্ডের মূল দায়িত্বের অভিযোগে অভিযুক্ত সউদ আল কাহতানির সঙ্গে বার্তা আদান-প্রদান করেছেন সৌদি যুবরাজ।  

এদিকে, গেল সপ্তাহের কংগ্রেস ব্রিফিংয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস জানান, সৌদি যুবরাজের এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কোনো সরাসরি প্রমাণ সিআইএ এর কাছে নেই।  

আর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভাষ্য অনুযায়ী, সিআইএ এর প্রতিবেদনই যুবরাজের বিরুদ্ধে নিরেট কোনো প্রমাণ নয়। গত ২০ নভেম্বর তিনি বলেন, এটা হতে পারে যে, এ মর্মান্তিক ঘটনার সম্পর্কে যুবরাজ জ্ঞাত ছিলেন। তিনি জড়িত থাকতে পারেন, আবার নাও পারেন।  

বাংলাদেশ সময়: ০৩০১ ঘণ্টা,  ডিসেম্বর ০৫, ২০১৮
এএইচএস/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।