ঢাকা, সোমবার, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

নিষেধাজ্ঞা ভেঙে পার্টি করে বেকায়দায় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২২
নিষেধাজ্ঞা ভেঙে পার্টি করে বেকায়দায় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

ঘটনাটা ২০২০ সালের মে মাসের। ব্রিটেনে তখন লকডাউন চলছে।

জমায়েত, পার্টি সবকিছুর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। আর সেই সময় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন তার সরকারি বাসভবনে ৪০ জনকে নিয়ে আয়োজন করেছিলেন গার্ডেন পার্টি।

ব্রডকস্টার আইটিভি জানিয়েছে, ইমেলের মাধ্যমে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটের বাসভবনে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে অতিথিদের। সেই ইমেল তারা যাচাই করেছে। বলা চলে, এই ইমেল ফাঁস হতেই আবারও বিতর্কে প্রধানমন্ত্রী বরিস। মহামারিকালে লকডাউনের বিধি ভেঙে পার্টি করেছিলেন তিনি।

অভিযোগ, যে সময় বাড়িতে মাত্র দুইজন মিলিত হতে পারতেন, তখন এই পার্টি করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। শুধু তাই নয়, তার প্রিন্সিপাল প্রাইভেট সেক্রেটারি মার্টিন রেনল্ডস এই ইমেল শতাধিক কর্মীকে পাঠিয়েছিলেন বলে খবর।

ইমেলে নিমন্ত্রিতদের বলা হয়েছিল, ‘ভয়ংকর ব্যস্ত সময়ের পর সুন্দর আবহাওয়ার সুযোগ নিন। আমরা সামাজিক দূরত্ব মেনে ১০ নম্বরের বাগানে সন্ধ্যায় সমবেত হবো। দয়া করে ছয়টার সময় আসবেন এবং নিজের মদ নিজে নিয়ে আসবেন। ’

আইটিভি জানিয়েছে, জনসন তার স্ত্রীসহ মোট ৪০ জন সে দিন পার্টি করেছিলেন। তবে প্রধানমন্ত্রী বরিসের বিরুদ্ধে লকডাউনের বিধিভঙ্গের অভিযোগ নতুন নয়। ২০২০ সালে তিনি ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে একাধিক পার্টি করেছেন বলে অভিযোগ ছিল। একজন উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তা এরকম পাঁচটি পার্টির অভিযোগ নিয়ে তদন্ত করছেন।

সোমবার (১০ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী বরিসকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তবে তিনি তার কোনো জবাব দেননি। তবে সে দেশের বিরোধী দলগুলো বিশেষ করে লেবার পার্টি, স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টি সবাই বরিসের তীব্র সমালোচনা করেছে।

সূত্র: ডয়চে ভেলে

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২২
এনএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa