ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ মাঘ ১৪২৯, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৭ রজব ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক

ক্ষমা চেয়ে ফের বেকায়দায় বরিস জনসন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২২
ক্ষমা চেয়ে ফের বেকায়দায় বরিস জনসন

দেড় বছর আগে লকডাউনের নিয়ম ভেঙে গার্ডেন পার্টি আয়োজন করায় তোপের মুখে পড়েছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ক্ষমা চেয়েও আরেকবার বেকায়দায় পড়লেন তিনি।

ফাঁস হলো নতুন তথ্য।

অভিযোগ উঠেছে, ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্যের আগে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটের সরকারি বাসভবনে প্রধানমন্ত্রীর কর্মচারীরা আরও দুটি পার্টির আয়োজন করেছিলেন। ওসব পার্টিতে করোনার বিধিনিষেধ অমান্য করা হয়েছে।
 
টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, পার্টি দুটিতে প্রায় ৩০ জন লোক সমবেত হয়েছিলেন। তারা মদ পান করেন এবং গানের সঙ্গে নাচছিলেন।

এ বিষয়ে আরেকটি প্রতিবেদনে বিবিসি জানায়, ২০২১ সালের ১৬ এপ্রিল পার্টি আয়োজনের কথা অস্বীকার করেনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। তবে তারা এটা নিশ্চিত করেনি যে বরিসের প্রাক্তন যোগাযোগ কর্মকর্তা জেমস স্ল্যাক পার্টিতে বিদায়ী ভাষণ দিয়েছিলেন কি-না।

মূলত স্ল্যাকের বিদায় উপলক্ষে এমন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলেন কর্মীরা। শুধু তাই নয়, দুটি পার্টিতে অংশ নিয়েছিলেন স্ল্যাক। এজন্য একজন কর্মীকে মদ আনতে পাশের একটি দোকানে পাঠানো হয়। তিনি পরে স্যুটকেস ভরে মদ আনেন।

তবে প্রধানমন্ত্রী বরিস পার্টি দুটিতে অংশ নেননি। তিনি সে সময় চেকার্সে তার সাপ্তাহিক ছুটি কাটাচ্ছিলেন। দেশটির বিরোধী দল লেবার পার্টির উপনেতা অ্যাঞ্জেলা রেনার এ ঘটনার তীব্র সমালোচনা করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২২
এনএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa