ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

আইন ও আদালত

বার্নিকাটের গাড়িতে হামলা: ডিবিকেই অধিকতর তদন্তের নির্দেশ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩, ২০২৩
বার্নিকাটের গাড়িতে হামলা: ডিবিকেই অধিকতর তদন্তের নির্দেশ কথা বলছেন মার্শা বার্নিকাট। ( ফাইল ফটো)

ঢাকা: রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় হওয়া মামলা অধিকতর তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

গত ১ জানুয়ারি ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রহমান ছিদ্দিকী এ আদেশ দেন।



মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) সিএমএম আদালতে মোহাম্মদপুর থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা এশারত আলী এ তথ্য জানান।  

তিনি বলেন, রোববার মৌখিক আদেশ হলেও বিচারক কর্তৃক স্বাক্ষরিত আদেশটি আজ আমরা পেয়েছি। গোয়েন্দা পুলিশই (ডিবি) চার্জশিট দেয়, তাদেরকেই অধিকতর তদন্তের ভার দেওয়া হয়েছে। তবে সহকারী কমিশনার পদমর্যাদার নিচে নন, এমন কাউকে তদন্তের দায়িত্ব দিতে বলেছেন আদালত।

এ মামলায় গত ১৮ জানুয়ারি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির পুলিশ পরিদর্শক মো. আবদুর রউফ এই অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ছাত্রলীগ নেতাসহ ৯ জনের নামে এই অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।

অভিযোগপত্রে ছাত্রলীগের নাইমুল হাসান, ফিরোজ মাহমুদ, মীর আমজাদ হোসেন, মো. সাজু ইসলাম, রাজিবুল ইসলাম রাজু, শহিদুল আলম খান কাজল, তান্না ওরফে তানহা ওরফে মুজাহিদ আজমি তান্না, সিয়াম, অলি আহমেদ ওরফে জনির নামোল্লেখ করা হয়। এছাড়া অজ্ঞাত নাম-ঠিকানা জানতে না পারায় আরও ১৫-২০ আসামির নাম অভিযোগপত্রে আসেনি। এতে ১৯ জনকে সাক্ষী করা হয়।

সেই অভিযোগপত্রের ভিত্তিতে মামলার বিচার শুরুর পর রাষ্ট্রপক্ষে ছয়জন সাক্ষ্য দেন৷ তাদের সাক্ষীতে ইশতিয়াক মাহমুদ নামে এক ব্যক্তির জড়িত থাকার কথা উঠে আসে। তাই রাষ্ট্রপক্ষে মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর মামলাটি অধিকতর তদন্তের আবেদন করেন ঢাকার মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক এ আদেশ দেন।

এর আগে, ডিবির অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালে ৪ আগস্ট রাতে সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজনের সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদারের মোহাম্মদপুর ইকবাল রোডের বাসায় নৈশভোজের অংশ নিতে যান। যেখানে গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন ও বিএনপি নেতা মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রমও অংশ নেন। খবর পেয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্র হচ্ছে অভিযোগ করে বদিউল আলম মজুমদারের বাসায় ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে৷  নৈশভোজ শেষে বেরিয়ে যাওয়ার সময় তারা মার্শা বার্নিকাটের গাড়ি ধাওয়া করলে তিনি দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।  
এ ঘটনায় ওই বছর ১০ আগস্ট রাতে ড. বদিউল আলম মজুমদার বাদী হয়ে মোহাম্মদপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলায় বলা হয়, ওই রাতে ৩০-৪০ জন দুর্বৃত্ত বার্নিকাটের গাড়িতে হামলা করে। তারা বার্নিকাটের ড্রাইভার ও বদিউলের ছেলের ওপর আক্রমণ করে। বার্নিকাটের গাড়িতে পেছনে পেছনে ধাওয়া করে ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় পিস্তল ও লাঠিসোঁটা নিয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের গাড়িতে আগুন দেওয়ার উসকানি দেয় দুর্বৃত্তরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৩, ২০২৩
কেআই/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।