ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

আইন ও আদালত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ঘটনায় মহিলা জজ অ্যাসোসিয়েশনের নিন্দা 

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৯, ২০২৩
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ঘটনায় মহিলা জজ অ্যাসোসিয়েশনের নিন্দা 

ঢাকা: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার  নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের-১ বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মোহাম্মদ ফারুকের আদালতে কতিপয় আইনজীবীর বেআইনিভাবে বিচারিক কাজে হস্তক্ষেপের ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে মহিলা জজ অ্যাসোসিয়েশন।

সোমবার (৯ জানুয়ারি) বাংলাদেশ মহিলা জজ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সৈয়দা হোসনে আরা ও মহাসচিব আবেদা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ নিন্দা জানানো হয়েছে।



বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সম্প্রতি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারককে বিচারিক দায়িত্ব পালনকালীন তার বিচারকাজে অবৈধ, বেআইনি হস্তক্ষেপ ও বাধা প্রদানসহ বিচারককে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আইনজীবী সমিতির কতিপয় আইনজীবী প্রকাশ্য আদালতে অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করে উচ্ছৃঙ্খল ও ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে।

একইসঙ্গে উচ্ছৃঙ্খল কতিপয় আইনজীবী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সৎ, দক্ষ ও বিচারকাজে আপসহীন জেলা ও দায়রা জজকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ অশালীন ভাষায় ও অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করে আদালত প্রাঙ্গণে স্লোগান দেয়, যা অত্যন্ত মানহানিকর। এমন ঘটনায় সমগ্র বাংলাদেশের বিচারকদের পাশাপাশি সাংগঠনিকভাবে বাংলাদেশ মহিলা জজ অ্যাসোসিয়েশনও চরম সংক্ষুব্ধ।

'উচ্ছৃঙ্খল আইনজীবীদের এ রূপ ঔদ্ধত্যপূর্ণ ও ঘূর্ণিত আচরণ বাংলাদেশের বিচার বিভাগের সুমহান মর্যাদাকে চরমভাবে ক্ষুণ্ন করেছে। বাংলাদেশ মহিলা জজ  অ্যাসোসিয়েশন এ ঘটনায় চরম সংক্ষুব্ধ হয়ে তার নিন্দা জানাচ্ছে।

একইসঙ্গে ভবিষ্যতে বাংলাদেশের বিচার বিভাগের মর্যাদা অক্ষুণ্ন রাখতে এ রূপ ঘটনায় জড়িত আইনজীবীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০২২
ইএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।