ঢাকা, শুক্রবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

আইন ও আদালত

সাড়ে তিন ঘণ্টা স্থগিত থাকার পর শেষ হলো ঢাকা বারের ভোট

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২৫৫ ঘণ্টা, মার্চ ১, ২০২৪
সাড়ে তিন ঘণ্টা স্থগিত থাকার পর শেষ হলো ঢাকা বারের ভোট

ঢাকা: ঢাকা আইনজীবী সমিতির (২০২৪-২৫) কার্যকরী কমিটির দুই দিনব্যাপী নির্বাচনে দ্বিতীয় দিনে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। তবে দ্বিতীয় দিনে জাল ব্যালটে ভোট দেওয়ার অভিযোগ উঠে।

 

এ নিয়ে দুইপক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে হট্টগোল হয়। এ সময় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটে বলে প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়। এসব কারণে সাড়ে তিন ঘণ্টা বন্ধ থাকে ভোটগ্রহণ।
 
বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে মাঝে এক ঘণ্টা বিরতি দিয়ে ৫টা পর্যন্ত চলে প্রথম দিনের ভোটগ্রহণ। যার মধ্যে প্রথম দিনে চার হাজার ১৩০ জন ভোট দেন।  

বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) দ্বিতীয় দিনে সকাল ৯টায় একইভাবে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। দুপুর ১২টার দিকে জাল ব্যালটে ভোট নেওয়ার অভিযোগ এনে হট্টগোল করে আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা। এ সময় তাদের হামলায় কয়েকজন আহত হয় বলে অভিযোগ করেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। পরে ব্যালট ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।  
এসব কারণে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি ভোটগ্রহণ স্থগিত করে দেয়। এরপর বারের সাবেক সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ জ্যেষ্ঠ আইনজীবীদের সঙ্গে বৈঠকে বসে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি। আলোচনা শেষে বেলা সাড়ে ৩টায় ফের ভোটগ্রহণ শুরু হয়। যা শেষ হয় সন্ধ্যা ৬টায়। দ্বিতীয় দিনে ভোট দেন ৫ হাজার ৪৬০ জন আইনজীবী। তাই ২১ হাজার ১৩৭ জন ভোটারের মধ্যে দুই দিনে পাঁচ হাজার ৬৯০ জন ভোট দেন। সবমিলিয়ে ভোট প্রদানের হার প্রায় ৪৫ শতাংশ।
 
নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের এক্সিকিউটিভ কমিটির চেয়ারম্যান ও ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি মোখলেসুর রহমান বাদল জানান, শুক্রবার জুমআর নামাজের পর ভোট গণনা শুরু হবে। গণনা শেষে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।  
নির্বাচনে আওয়ামী লীগপন্থী বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত সাদা প্যানেল ও বিএনপি-জামায়াতপন্থী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল সমর্থিত নীল প্যানেলের মধ্যে হবে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা।  

সাদা প্যানেল থেকে সভাপতি পদে আবদুর রহমান হাওলাদার ও সাধারণ সম্পাদক পদে মো. আনোয়ার শাহাদাত শাওন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এই প্যানেল থেকে সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে আবুল কালাম মোহাম্মদ আক্তার হোসেন, সহ-সভাপতি পদে মো. আবু তৈয়ব, অর্থ সম্পাদক পদে মো. ওমর ফারুক, সিনিয়র সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে মো. মাসরাত আলী তুহিন, সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে আসাদুজ্জামান বাবু, লাইব্রেরি সম্পাদক পদে হুমায়ূন কবির সবুজ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে মনিরা বেগম মনি, দপ্তর সম্পাদক পদে সরোয়ার জাহান, ক্রীড়া সম্পাদক পদে মো. ওয়াকিলুর রহমান, সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে প্রদীপ চন্দ্র সরকার, তথ্য ও যোগাযোগ সম্পাদক পদে সৈয়দা ফরিদা ইয়াসমিন জেসী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।  

এ ছাড়া এই প্যানেল থেকে কার্যনির্বাহী সদস্য পদে মাহমুদুল হাসান, মোহাম্মদ মহসিন উদ্দিন, এমদাদুল হক এমদাদ, হাফিজ আল মামুন, কাজী হুমায়ূন কবির, মো. ইমরান হাসান, শাহীন আহমেদ, সুমন আহমেদ, মো. আব্দুর রহমান মিয়া ও মো. মঈনুদ্দিন মিয়া প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অপরদিকে নীল প্যানেল থেকে সভাপতি পদে খোরশেদ মিয়া আলম ও সাধারণ সম্পাদক পদে লড়ছেন সৈয়দ নজরুল ইসলাম লড়ছেন।

এই প্যানেল থেকে সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক, সহ-সভাপতি পদে মোহাম্মদ শহীদুজ্জামান, অর্থ সম্পাদক পদে আব্দুর রশিদ মোল্লা, সিনিয়র সহ-সম্পাদক পদে মোহাম্মদ জহুরুল হাসান মুকুল, সহ-সম্পাদক পদে সৈয়দ মোহাম্মদ মাইনুল হাসান (অপু), লাইব্রেরি সম্পাদক পদে মিসেস নার্গিস প্রধান (মুক্তি), সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে নুরজাহান বেগম বিউটি, দপ্তর সম্পাদক পদে মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, ক্রীড়া  সম্পাদক পদে মো. মোবারক হোসাইন, সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে মাহবুব হাসান (রানা) এবং তথ্য ও যোগাযোগ সম্পাদক পদে মোহাম্মদ ইসলাম মারুফ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।  

এই প্যানেল থেকে কার্যনির্বাহী সদস্য পদে আলী মর্তুজা, গাজী তানজিল আহমেদ, মো. আনোয়ার হোসাইন চাঁদ, মো. আরিফ, মো.  জাবেদ হোসাইন, মো. খলিলুর রহমান, মোহাম্মদ আলী (বাবু), মুক্তা বেগম, মো. শহীদুজ্জামান দিপু, রেজাউল হক রিয়াজ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বাংলাদেশ সময়: ০২৫২ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০২৪
কেআই/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।