ঢাকা, শুক্রবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

আইন ও আদালত

ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা করতে রাজউককে চিঠি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৩৭ ঘণ্টা, মার্চ ২, ২০২৪
ঝুঁকিপূর্ণ ভবনের তালিকা করতে রাজউককে চিঠি

ঢাকা: রাজধানীর বেইলি রোডের মর্মান্তিক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কাদের দায়িত্বের অবহেলা ছিল তা চিহ্নিত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষেরে চেয়ারম্যান বরাবর চিঠি দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবী।

শনিবার (০২ মার্চ) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী এম, আবদুল্লাহ আল হারুন ভূঁইয়া এ চিঠি দেন।

  

চিঠিতে তিনি বলেন,  গত ২৯ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর বেইলি রোডে গ্রিন কেজি কটেজ নামক বিল্ডিংয়ে আগুন লাগে যার ফলে এখন পর্যন্ত প্রায় ৪৬ জন নিহত হন এবং আরও অনেকে হাসপাতালে গুরুতর অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর এবং বিশেষজ্ঞ মতামতের ভিত্তিতে জানতে পারি, ভবনটি যে ধরনের বাণ্যিজিকভাবে ব্যবহার হয়েছে তার অনুমোদন ছিল না এবং ভবনের ভেতরে ওঠা-নামার সিঁড়ি নিয়ম অনুযায়ী তৈরি করা হয়নি। এছাড়া ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স ডিপার্টমেন্ট বারবার সতর্ক এবং ভবনে এ ধরনের কার্যক্রম বন্ধ করার জন্য নোটিশ দেওয়ার পরও কোনো ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। যেটি চরমভাবে দায়িত্বের অবহেলা এবং ফলশ্রুতিতে উক্ত ঘটনা সংঘটিত হয় এবং অনেক মানুষের প্রাণহানি ঘটে। প্রায় প্রতিবছরই এই ধরনের অঘটন ঘটছে এবং প্রাণহানি হচ্ছে।

সুপ্রিম কোর্টের এ আইনজীবী আরও বলেন, এ বিষয়গুলোর ব্যাপারে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল সেটির সঠিক তথ্য তুলে ধরে ব্যবস্থা গ্রহণ, বৃহস্পতিবার ঘটে যাওয়া মর্মান্তিক ঘটনায় কাদের দায়িত্বের অবহেলা ছিল তাদের চিহ্নিত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ ও এই ধরনের নিয়ম বহির্ভূতভাবে কার্যক্রম পরিচালনা কীভাবে হচ্ছে এবং রাজধানীতে কতগুলো ঝুঁকিপূর্ণ ভবন রয়েছে সেগুলো চিহ্নিত করে সিলগালা করে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তদন্ত কমিটি গঠন করে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

অন্যথায় যথাযথভাবে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও জানান আইনজীবী।

চিঠির অনুলিপি গৃহায়ন ও গণপূর্ত সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সচিব, ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সচিব বরাবরে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৬ ঘণ্টা, মার্চ ২, ২০২৪
ইএস/এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।