ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

আইন ও আদালত

আদালতে জবানবন্দি দিলেন অপহরণের শিকার সোনালী ব্যাংকের সেই ম্যানেজার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩০৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৫, ২০২৪
আদালতে জবানবন্দি দিলেন অপহরণের শিকার সোনালী ব্যাংকের সেই ম্যানেজার

বান্দরবান: বান্দরবানের রুমা উপজেলায় সোনালী ব্যাংকে সশস্ত্র সন্ত্রাসী সংগঠন কেএনএফের ডাকাতির ঘটনার অন্যতম প্রধান সাক্ষী ম্যানেজার নেজাম উদ্দিনের জবানবন্দি নিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নাজমুল হোসাইনের আদালতে হাজির হয়ে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন তিনি।

আদালত সূত্রে জানা যায়, দুপুরে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে আনা হয় ব্যাংক ম্যানেজারকে। বিকেল ৩টায় শুরু হয় জবানবন্দি গ্রহণ, চলে রাত ৯টা পর্যন্ত। দীর্ঘ ছয় ঘণ্টার জবানবন্দিতে রুমা সোনালী ব্যাংক ডাকাতির বিষয়ে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেন ব্যাংক ম্যানেজার মো. নেজাম উদ্দিন।

কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক এ কে ফজলুল হক জানান, রুমা সোনালী ব্যাংকের তৎকালীন ম্যানেজার নেজাম উদ্দিনের জবানবন্দি নিয়েছেন আদালত। দীর্ঘক্ষণ জবানবন্দিতে ব্যাংক ডাকাতির মামলায় বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে।

এদিকে অপহরণকারীদের কাছ থেকে সুস্থভাবে মুক্ত হতে পেরে সৃষ্টিকর্তার কাছে এবং দেশবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন মো. নেজাম উদ্দীন।

গত ২ এপ্রিল রাতে বান্দরবানের রুমায় সোনালী ব্যাংকে হামলা চালিয়ে ব্যাংকের নিরাপত্তায় নিয়োজিত পুলিশ ও আনসার সদস্যদের মারধর করে ১৪টি অস্ত্র লুট করে নিয়ে যায় কেএনএফ সদস্যরা। এসময় অপহরণ করা হয় সোনালী ব্যাংকের রুমা শাখার সেই সময়ের ম্যানেজার মো. নেজাম উদ্দিনকে। পরে ৪ এপ্রিল বিকেলে নেজাম উদ্দিনকে অপহরণকারীদের কাছ থেকে উদ্ধার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। বর্তমানে মো. নেজাম উদ্দিন রুমা শাখা থেকে বদলি হয়ে চট্টগ্রাম সোনালী ব্যাংকের কর্ণফুলী শাখায় কর্মরত রয়েছেন। ৩ এপ্রিল দুপুরে থানচির সোনালী ব্যাংক ও কৃষি ব্যাংকে ডাকাতি হয়। এসব ঘটনায় রুমা ও থানচি থানায় নয়টি মামলা করা হয়। এসব মামলায় এক জিপচালকসহ ৭৮ জনকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৫, ২০২৪
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।