ঢাকা, বুধবার, ১ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১০ মহররম ১৪৪৬

আইন ও আদালত

আদালত অবমাননা: ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের অব্যাহতি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩১৬ ঘণ্টা, জুন ১২, ২০২৪
আদালত অবমাননা: ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের অব্যাহতি

ঢাকা: বিএনপিপন্থি আইনজীবীদেরকে আদালত অবমাননার বিষয়ে লিখিত ব্যাখ্যা দিতে বলেছেন আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে শুনানি আগামী ২৫ জুলাই পর্যন্ত মুলতবি করে তাদের ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন।

বুধবার (১২ জুন) প্রধান বিচারপতির ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

আদালতে আইনজীবীদের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদীন।

তিনি আদালতে বলেন, সাত আইনজীবীর মধ্যে একজন সিনিয়র আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী মারা গেছেন। অন্যরা এখানে উপস্থিত আছে। এরা সবাই আদালতের সম্মান ও মর্যাদার প্রতি শ্রদ্ধাশীল। এছাড়া আইনজীবী (বার) ও আদালতের মধ্যে খারাপ সম্পর্ক হোক তা আমরা চাই না। কারণ, দিন শেষে আমরা এই আদালতে এসেই দাঁড়াই। তাই আদালতের মর্যাদা রক্ষা করা আমাদের সবার দায়িত্ব।

এ সময় প্রধান বিচারপতি বলেন, যে কথাগুলো বললেন তা তো আপনাদের হৃদয়ের কথা। কিন্তু আদালত অবমাননার অভিযোগের বিষয়ে কি কোনও লিখিত জবাব দিয়েছেন?’ তখন জয়নুল আবেদীন বলেন, লিখিত দেওয়া হয়নি।

তখন প্রধান বিচারপতি বলেন, আপনারা আপনাদের হৃদয়ের কথা যা বললেন, তাই লিখিত আকারে দিন। তখন আমরা বিষয়টি দেখব।

শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ‘আমরা বাংলাদেশের বিচারপতিরা আমরা হলাম শপথবদ্ধ রাজনীতিবিদ’- আপিল বিভাগের এক বিচারপতির এমন বক্তব্যকে কেন্দ্র করে মিছিল-স্লোগান-সভা অব্যাহত রাখায় বিএনপিপন্থি কয়েকজন আইনজীবীর বিরুদ্ধে গত বছরের ২৯ আগস্ট আদালত  অবমাননার আবেদন করেন আইনজীবী মোহাম্মদ নাজমুল হুদা।

পরে ১৫ নভেম্বর এক আদেশে আপিল বিভাগ সশরীরে হাজির হয়ে আদালত অবমাননার অভিযোগের ব্যাখ্যা দিতে ১৫ জানুয়ারি বিএনপিপন্থি সাত আইনজীবীকে তলব করেন।

সে অনুসারে ১৫ জানুয়ারি সাত আইনজীবী আপিল বিভাগে হাজির হন। ওইদিন শুনানি ২৯ জানুয়ারি পর্যন্ত মুলতবি করা হয়। তার ধারাবাহিকতায় আজ শুনানির জন্য উঠে।

সাত আইনজীবী হলেন, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সভাপতি, সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল সদ্য প্রয়াত এ জে মোহাম্মদ আলী, ফোরামের মহাসচিব ও বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট ফাহিমা নাসরিন মুন্নি, জাতীয়তবাদী আইনজীবী ফোরাম সুপ্রিম কোর্ট শাখার সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল জব্বার ভূঁইয়া ও সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সহ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান খান এবং জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সুপ্রিম কোর্ট শাখার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট গাজী কামরুল ইসলাম সজল।

বাংলাদেশ সময়: ১৩১৬ ঘণ্টা, জুন ১২, ২০২৪
ইএস/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।