ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

ঢাবি ব্যান্ড সোসাইটির সভাপতি ইনজামাম, সাধারণ সম্পাদক রুদ্র

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৭, ২০২৩
ঢাবি ব্যান্ড সোসাইটির সভাপতি ইনজামাম, সাধারণ সম্পাদক রুদ্র

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি): বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যান্ড সোসাইটির (ডিইউবিএস) নতুন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন মো. ইনজামাম উল ইবনে কবীর এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে রুদ্র প্রসাদ রায়।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির মডারেটর ড. মাহবুবুর রহমান লিটু এ কমিটি ঘোষণা করেন।

সংগঠনটির সদ্য বিদায়ী সভাপতি শিবলী হাসান জয়, সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসানসহ অন্যান্য সদস্যরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া কমিটিতে সহ-সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন মো. ইফতেখারুল দিনার ও চেমন ফারিয়া ইসলাম মেঘলা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সারিকা মাসতুরা, সাংগঠনিক সম্পাদক রিদোয়ান সালেহ চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক রিফাত হোসেন দিগন্ত, অর্থ সম্পাদক শিরিয়া শবনম রাহা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ফাহিমা নাসরিন, অনুষ্ঠান সম্পাদক সিয়াম মাহবুব, শৃঙ্খলা সম্পাদক মুর্তুজা হাহান খান, মানব সম্পদ সম্পাদক নুসরাত জাহান, আপ্যায়ন সম্পাদক সালমান শাহরিয়ার, প্রশিক্ষণ সম্পাদক জায়েদ হাসান এবং সদস্য পদে অনিদ হাসান, সামি আজমাইন ও সোহানুর রহমান।

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ব্যান্ড সংগীত চর্চা, প্রসার ও সাম্প্রদায়িক শক্তির উত্থানকে প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক আন্দোলনের মাধ্যমে রুখে দেওয়ার অঙ্গীকার নিয়ে ২০১৬ সালে ব্যান্ড সোসাইটির জন্ম হয়। ক্যাম্পাসভিত্তিক ব্যান্ড অর্জনের দলনেতা লালন মাহমুদ এবং দুর্গ ব্যান্ডের দলনেতা আব্দুল্লাহ আল ফারাবির হাত ধরে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ব্যান্ড সোসাইটি’ নামে প্রথম ক্যাম্পাসভিত্তিক মিউজিক্যাল সংগঠনটি যাত্রা শুরু করে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্রের প্রশিক্ষণ কর্মাশালা আয়োজন, ব্যান্ড সংগীত বিষয় সেমিনারের আয়োজন করে সংগঠনটি। এছাড়া ভাষার মাস ফেব্রুয়ারিতে ‘আমার ভাষার গান’ আয়োজনসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের পরিচালনা করে। তৎকালীন সভাপতি লালন মাহমুদ এবং সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল ফারাবীর তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশের প্রথম ক্যাম্পাসভিত্তিক ব্যান্ড মিক্সড অ্যালবাম ‘অপরাজেয়’। বিভিন্ন জাতীয় ও সামাজিক সংকটে এটি চ্যারিটি কনসার্ট আয়োজন করে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ট্রিবিউট টু স্যার লাকি আখন্দ, কনসার্ট ফর অহন, বন্যার্তদের সাহায্যার্থে আয়োজিত কনসার্ট ইত্যাদি।

করোনা মহামারির সময় সংগঠনটির কার্যক্রমে কিছুটা ছেদ পড়ে। পরে ২০২২ সালের ২৬ ডিসেম্বর শিবলী হাসান জয় এবং কামরুল ইসলামের নেতৃত্বে ১৭ জনের নির্বাহী পরিষদ করা হয়। এ পরিষদ করোনাকালীন অচলায়তন ঘুচিয়ে পুনরায় সংগঠনটিকে গতিশীল করে।

বাংলাদেশ সময়: ১০২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৭, ২০২৩
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।