ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪৩১, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

দেড় লাখ টাকাসহ জাতীয় গৃহায়নের উপ-সহকারী প্রকৌশলী গ্রেপ্তার 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৮ ঘণ্টা, মার্চ ৪, ২০২৪
দেড় লাখ টাকাসহ জাতীয় গৃহায়নের উপ-সহকারী প্রকৌশলী গ্রেপ্তার 

দিনাজপুর: দিনাজপুরে ‘ঘুষে’র দেড় লাখ টাকাসহ জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মুহাম্মদ মোরশেদ আলমকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার (৪ মার্চ) বিকেলে দিনাজপুরে নিজ কার্যালয় থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

 

এসময় দুদকের দিনাজপুর অফিসের উপ-পরিচালক মুহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেনের নেতৃত্বে সংস্থাটির সহকারী পরিচালক নূর আলম ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সহকারী পরিচালক ইসমাইল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।  

পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে গ্রেপ্তারকৃত উপ-সহকারী প্রকৌশলী মুহাম্মদ মোরশেদ আলমকে আদালতে পাঠানো হয়।  

এর আগে বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রিভাইজড প্ল্যান অনুমোদন, খণ্ড জমি বরাদ্দ ও প্লটের বাণিজ্যিক অনুমোদনে ঘুষ দাবির অভিযোগে জেলা দুদক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মুহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন দিনাজপুর জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে অভিযান চালায়।  

এসময় প্লট বাণিজ্যের জন্য নেওয়া দেড় লাখ টাকাসহ বিভিন্ন নথিপত্র জব্দ করা হয়। পরে তাকে ওই কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলীর হেফাজতে রাখা হয়।  

দুদক সূত্রে জানা যায়, বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দিনাজপুরে জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে রিভাইজড প্ল্যান অনুমোদন, খণ্ড জমি বরাদ্দ ও প্লটের বাণিজ্যিক অনুমোদনে ঘুষ দাবির অভিযোগে দুদকের দিনাজপুর জেলা কার্যালয় থেকে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মুহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেনের নেতৃত্বে সংস্থাটির সহকারী পরিচালক নূর আলম, ইসমাইল হোসেনসহ একটি দল অংশ নেন। এসময় প্লট বাণিজ্যের জন্য নেওয়া দেড় লাখ টাকাসহ বিভিন্ন নথিপত্র জব্দ করা হয়। পরে তাকে ওই কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলীর হেফাজতে রাখা হয়।  

দিনাজপুর জেলা দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক নুর আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৭ ঘণ্টা, মার্চ ০৪, ২০২৪
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।