ঢাকা, শুক্রবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

বগুড়া স্বর্ণের দোকানে চুরি, ১২০ ভরি গয়না খোয়ার দাবি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২০, ২০২৪
বগুড়া স্বর্ণের দোকানে চুরি, ১২০ ভরি গয়না খোয়ার দাবি

বগুড়া: বগুড়ায় এক স্বর্ণের দোকানে চুরি হয়েছে। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) রাতের কোনো এক সময়ে শহরের নিউ মার্কেটে আল তৌফিক জুয়েলার্সে এ ঘটনা ঘটে।

চোরেরা দোকান থেকে ১০০ থেকে ১২০ ভরি স্বর্ণের গয়না চুরি করেছে বলে দাবি করেছেন জুয়েলার্সের মালিক পক্ষ। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

জুয়েলার্সের মালিক কামরুল হোসেন বলেন, শনিবার (২০ এপ্রিল) সকাল ১০টা ২০ মিনিটের দিকে ম্যানেজার ফোন দিয়ে জানায় দোকানের তালা ভাঙা ও দোকান খোলা। এছাড়াও ছোট স্বর্ণের জিনিসও পড়ে আছে। খবর পেয়ে আমি দোকানে আসি। পরে মার্কেটের সেক্রেটারি ও মালিক সমিতির সেক্রেটারিকে সাথে নিয়ে থানা পুলিশকে অবগত করি। থানায় থেকে পুলিশ এসে ঘটনাস্থল দেখে গেছে৷

তিনি আরও বলেন, আমার দোকানে সিসিটিভি ক্যামেরা থাকলেও রাতে বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে দেওয়ায় সেটি সচল ছিল না৷ আনুমানিক ১০০ থেকে ১২০ ভরি স্বর্ণ চুরি হয়েছে।

জুয়েলার্সের ম্যানেজার ধলু মিয়া বলেন, রাতে দোকানের ডিসপ্লেতে যে সোনার জিনিসপত্র রেখে গিয়েছিলাম সেগুলোর একটাও নেই। প্রায় ১০০ থেকে ১২০ ভরি সোনা চুরি করে নিয়েছে।  দোকানে এসে শুধু সিন্দুকে যে সোনা ছিল সেটাই পেয়েছি।

বগুড়া নিউ মার্কেটের সেক্রেটারি শামীম সরকার বলেন, আমাদের মার্কেটে সিকিউরিটি আরও বাড়ানো দরকার। পর্যাপ্ত সিকিউরিটি আমরা দিতে পারি না। এক্ষেত্রে দোকানদাররা যদি সিকিউরিটির টাকাটা দিতেন তাহলে সিকিউরিটি বাড়ানো যেত। আমরা মার্কেটে সব দোকানদের সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানোর কথাও বার বার বলেছি। আমরা এবার সিকিউরিটির বিষয়ে কঠোর হবো।

বগুড়া সদর থানার ইন্সপেক্টর (অপারেশন)  ফইম উদ্দিন বলেন, নিউ মার্কেটে একটা জুয়েলার্সে চুরির ঘটনা ঘটেছে৷ খবর পেয়ে আমাদের টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আমরাও তদন্ত শুরু করেছি। এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ২০, ২০২৪
কেইউএ/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।