ঢাকা, সোমবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৭ মে ২০২৪, ১৮ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

বৃষ্টির জন্য দিনাজপুরে ইসতিসকার নামাজ আদায় 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
বৃষ্টির জন্য দিনাজপুরে ইসতিসকার নামাজ আদায় 

দিনাজপুর: সারা দেশে চলছে তাপপ্রবাহ। দেখা নেই বৃষ্টির।

সূর্যের উত্তাপ আর তাপমাত্রার পারদ দিনে দিনে বাড়ছে। শুকিয়ে যাচ্ছে নদী-নালা, খাল-বিলের পানি। ব্যাহত হচ্ছে কৃষি কাজ, দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে জনজীবন। এ পরিস্থিতিতে বৃষ্টিপাত কামনায় সালাতুল ইসতিসকার নামাজ আদায় করেছেন দিনাজপুরের একটি মাদরাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।  

বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে জেলার চিরিরবন্দর ইছামতি ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসা ও এতিমখানা হাফেজিয়া মাদরাসা মাঠে বিশেষ এ নামাজের আয়োজন করা হয়।  

এ নামে মাদরাসার অর্ধশতাধিক শিক্ষক শিক্ষার্থী সালাতুল ইসতিসকার নামাজে অংশ নেন। আর নামাজে ইমামতি করেন ওই মাদরাসার মুহতামিম হাফেজ মাওলানা আবু রায়হান।  

নামাজে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থী তৌফিক বাবু বলেন, গরম আর রোদের তাপে ক্ষেতের ফসল নষ্ট হচ্ছে, গরমে হিট স্ট্রোকে মানুষের মৃত্যুও হচ্ছে। ঠিকমতো কোনো কাজ করা যাচ্ছে না। তাই বৃষ্টিপাতের জন্য আমরা এই নামাজের মাধ্যমে দোয়া করেছি। আল্লাহ তাআলা যেন তার রহমতের বৃষ্টি দেন।  

ইমাম আবু রায়হান বলেন, সারা দেশে তাপমাত্রা বেড়েই চলছে। এতে জনজীবন বিপর্যস্ত হচ্ছে। নবীর আমলে এ ধরনের পরিস্থিতি হলে তারা নামাজের মাধ্যমে আল্লাহ তায়ালার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে রহমতে বৃষ্টির জন্য দোয়া করতেন।  

ইছামতি ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসার অধ্যক্ষ মোখলেছুর রহমান বলেন, তাপমাত্রা বৃদ্ধি ও বৃষ্টিপাতের অভাবে পানির স্তর নিচে নেমে গেছে। টিউবওয়েল বা মেশিনে পানি ঠিক মতো উঠছে না।  মানুষের পানির কষ্ট, কৃষিকাজ ব্যাহতসহ বৃষ্টির ভাবে নানাবিধ সমস্যা দেখা দিচ্ছে। তাই আমরা আজকে সালাতুল ইসতিসকার নামাজ আদায় করে বৃষ্টির জন্য আল্লাহ তাআলার কাছে বৃষ্টির জন্য প্রার্থনা করেছি।  

দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার কেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দিনাজপুরে ৪০ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।