ঢাকা, শুক্রবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা, প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসূচি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৫, ২০২৪
বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা, প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসূচি

ঢাকা: বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার রয়েছে। কিন্তু গত এক মাস ধরে সংবাদ সংগ্রহের কাজে তারা কেন্দ্রীয় ব্যাংকে ঢুকতে পারছেন না।

এর প্রতিবাদে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের সঙ্গে বৈঠক ও ব্যাংক বিটের সাংবাদিকরা মতিঝিলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান ফটকে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) বেলা ১১টা থেকে বৈঠক ও অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়।

মূলত ব্যাংক খাতের অনিয়ম দুর্নীতির নিউজ প্রকাশ হওয়ার কারণে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি সাংবাদিকদের অবাধ প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয়।

ব্যাংক বিটের সাংবাদিকদের দাবি, সম্প্রতি কিছু ব্যাংকের অনিয়ম দুর্নীতির খবর গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। এতে বাংলাদেশ ব্যাংক ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিক প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করেছে। এর আগেও কয়েকবার এরকম সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি।

ব্যাংক বিটের সাংবাদিক জিহাদুল হক ও জয়নাল আবেদিন খান বলেন, আমরা নির্বিঘ্নে পেশাগত দায়িত্ব পালন করলেও মার্চ মাসের মাঝামাঝিতে হঠাৎ করে প্রবেশ সীমাবদ্ধ করে দেয়। আগে যেখানে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে রিসিপশনে সাংবাদিকের পরিচয় দিয়ে নির্দিষ্ট কার্ড নিয়েই বাংলাদেশ ব্যাংকে প্রবেশ করা যেত। গত মাস থেকে বাংলাদেশে ব্যাংকে অবাধ প্রবেশাধিকার বন্ধ করে দেওয়া হয়। এতে পেশাগত দিক থেকে তথ্য সংগ্রহের কাজে বাধার মুখে পড়ছেন তারা।

এর আগে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলন করে সংস্থার অবস্থানের কথা জানান। তখন শুধু তার দপ্তর পর্যন্ত প্রবেশাধিকার সীমা বদ্ধ করে দেওয়া হয়।

বিষয়টি সমাধানের জন্য বেলা ১১টার দিকে অর্থনীতি-বিষয়ক সাংবাদিকদের সংগঠন ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের (ইআরএফ) সভাপতি মোহাম্মদ রেফায়েত উল্লাহ মীরধা ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদারের সঙ্গে বৈঠক করেন। একই সময়ে ব্যাংক বিটের সাংবাদিকরা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান ফটকে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। তবে, প্রবেশাধিকারের ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই বৈঠক শেষ হয়।

গভর্নরের সঙ্গে বৈঠক শেষে ইআরএফের সভাপতি মোহাম্মদ রেফায়েত উল্লাহ মীরধা ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম জানান, আগামী মে মাসের ৮ তারিখের পর অনুষ্ঠেয় কর্মশালার পর গভর্নর সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকারের বিষয়টি নিয়ে বিবেচনা করবেন।

বৈঠক ও কর্মসূচি শেষে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মেজবাউল হক বিটের সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এখন থেকে সাংবাদিকরা ব্যাংকের যে কর্মকর্তার সাথে দেখা করবে তার দেওয়া পাসের ভিত্তিতে শুধু বাংলাদেশ ব্যাংকে ওই কর্মকর্তার  সঙ্গে দেখা করতে পারবে। জবাবে সাংবাদিকরা বিষয়টিকে অবাস্তব ও তথ্য প্রবাহে বাধার নামান্তর বলে উল্লেখ করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৫, ২০২৫
জেডএ/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।