ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

কোম্পানীগঞ্জে নাবিক রাজুর পরিবারে আনন্দ উল্লাস

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪৭ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২৪
কোম্পানীগঞ্জে নাবিক রাজুর পরিবারে আনন্দ উল্লাস

নোয়াখালী: ভারত মহাসাগরে সোমালিয়ার জলদস্যুদের হাত থেকে মুক্ত এমভি আব্দুল্লাহ জাহাজের ২৩ নাবিকের একজন নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার আনোয়ারুল হক রাজু। বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়ে প্রায় সাড়ে পাঁচ মাস পর বাড়ি ফিরেছেন তিনি।

 

মঙ্গলবার (১৪ মে) দিবাগত রাতে রাজু নিজ বাড়িতে ফিরে আসায় ওই সময় এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। সাড়ে পাঁচ মাসের বেশি সময় পর রাজুকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন মা-বাবা ও পরিবারের সদস্যরা। কেউ কেউ খুশিতে কাঁদতে থাকেন। এখন তার পরিবারে বইছে উৎসবের আমেজ।  

নাবিকদের দ্রুত সময়ে মুক্তিতে প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন নাবিক রাজুর স্বজনরা।  

ছেলের ফিরে আসার দিনক্ষণ আগেই জানা ছিল মা-বাবার। রাজুর বন্ধুরা মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে তাকে নিয়ে ফিরে আসেন নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের রামপুর ইউনিয়নের গ্রামের বাড়িতে।

এ সময় তাকে বরণ করে নেন স্বজনরা। এতে অবসান ঘটে এক দীর্ঘ উৎকণ্ঠার। একইসঙ্গে পরিবারে বইছে উৎসবের আমেজ। সুস্থভাবে বাড়িতে ফিরতে পেরে আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় করেছেন রাজু। ছেলের ফিরে আসায় মা রেঁধেছেন তার পছন্দের গরুর মাংস ও সামুদ্রিক মাছ।  

রাতেই নাবিক রাজু তার বড় বোন কামরুন নাহার রুমি, বড় ভাই জিয়াউল হক রনি, মা দৌলত আরা বেগম ও বাবা মাস্টার আজিজুল হককে নিয়ে মায়ের রান্না করা খাবার খেয়েছেন। খাওয়ার পর জিম্মি দশার স্মৃতির চারণ করেন তিনি।         

বুধবার (১৫ মে) সকাল থেকে নাবিক রাজুর বাড়িতে এখন আনন্দ উল্লাস চলছে। এলাকাবাসী ও স্বজনরা দেখতে আসছেন তাকে।  

নিরাপদ সমুদ্র যাত্রা নিশ্চিত করতে আন্তর্জাতিক শিপিং সংস্থাগুলো কাজ করবে এমনটাই প্রত্যাশা স্বজনসহ সবার।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৫ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২৪
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।