ঢাকা, বুধবার, ২ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১০ মহররম ১৪৪৬

জাতীয়

মিয়ানমারে গোলাগুলি, টেকনাফ সীমান্তে আতঙ্কে স্থানীয়রা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮৪১ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২৪
মিয়ানমারে গোলাগুলি, টেকনাফ সীমান্তে আতঙ্কে স্থানীয়রা ফাইল ফটো

কক্সবাজার: কক্সবাজারে টেকনাফের নাফ নদীর শাহপরীর দ্বীপসহ আশপাশের সীমান্তে মিয়ানমারের ওপার থেকে আবারও ভেসে আসছে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ। এতে কিছুটা আতঙ্কে স্থানীয় বাসিন্দারা।

বুধবার (১২ জুন) রাত ১০টা থেকে নাফ নদীর টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপসহ আশপাশের এলাকায় বিস্ফোরণের এসব শব্দ শোনা যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন সীমান্ত এলাকার লোকজন।

সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুস সালাম জানান, টেকনাফ-সেন্ট মার্টিনে নৌরুটে চলাচলকারী নৌযান লক্ষ্য করে কয়েকদিন ধরে গুলিবর্ষণের ঘটনায় এমনিতেই আতঙ্কে রয়েছেন স্থানীয়রা। এ পরিস্থিতিতে বেশ কিছুদিন বন্ধ থাকার পর আবার নতুন করে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা যাচ্ছে। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

আব্দুস সালাম বলেন, বুধবার রাত ১০টার পর থেকে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপসহ আশপাশের সীমান্ত এলাকায় মিয়ানমারের ওপার থেকে থেমে থেমে ভেসে আসতে শুরু করে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ। এতে সীমান্ত লাগোয়া শাহপরীর দ্বীপ জেটিঘাট এলাকাসহ জালিয়াপাড়া, পশ্চিম পাড়া, উত্তর পাড়া ও আচারবনিয়ার আশপাশের বসতঘর ও স্থাপনাগুলোতে বিকট শব্দ শোনা যায়।

বিস্ফোরণের শব্দ ভেসে আসার ঘটনা অব্যাহত থাকায় স্থানীয়দের অনেকে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন। তবে রাত ১টার পর থেকে বিস্ফোরণের শব্দ কিছুটা কমে আসে বলেও জানান তিনি।

সীমান্ত এলাকার বাসিন্দারা জানান, শাহপরীর দ্বীপ সীমান্তের নাফ নদীর ওপারে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের মংডু শহরের আশপাশের মেগিচং, কাদিরবিল, নুরুল্লাহপাড়া, মাঙ্গা, নলবইন্ন্যা, ফাদংচা ও হাসুরাতা এলাকা। ধারণা করা হচ্ছে, মংডু শহর ও আশপাশের এলাকাগুলোতে দেশটির সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির মধ্যে তীব্র লড়াই চলছে। এতে উভয়পক্ষ ভারী অস্ত্র ও গোলাবারুদ ব্যবহার করায় বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা যাচ্ছে।

টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আদনান চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, শাহপরীর দ্বীপ সীমান্তে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা যাওয়ার বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে জেনেছেন। তবে সীমান্ত পরিস্থিতি সম্পর্কে বিজিবি ও কোস্টগার্ডসহ সংশ্লিষ্টরা সজাগ রয়েছে।

তারপরও সীমান্ত পরিস্থিতির ওপর প্রশাসন পর্যবেক্ষণে রয়েছে বলে জানান ইউএনও আদনান।

বাংলাদেশ সময়: ০৮৪১ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০২৪
এসবি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।