ঢাকা, বুধবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

নতুন বছর বোঝেন না রহিমা, চান খাবার

আবাদুজ্জামান শিমুল, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০২২
নতুন বছর বোঝেন না রহিমা, চান খাবার

ঢাকা: জীবন থেকে চলে গেল আরেকটি বছর। উৎসব-আয়োজনে বরণ হলো ইংরেজি বছর ২০২২।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও মোবাইলে বার্তা পাঠিয়ে প্রিয়জনদের কাছে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অনেকেই। তাদের প্রত্যাশা, নতুন বছর সবার জন্য সুখ-সমৃদ্ধি বয়ে আনুক।

তবে নতুন বছর কী, সেটা বোঝেন না রাজধানীতে ভিক্ষা করা রহিমা বেগম (৫৭)। তিনি চান, প্রতিদিন ভালো খাবার।  

শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর রামপুরা বাজারে আসা বিভিন্ন লোকজনের কাছে ভিক্ষা করতে দেখা যায় রহিমা বেগমকে।

এ সময় রহিমা বেগম বাংলানিউজের এই প্রতিবেদককে বলেন, তার বাড়ি ফরিদপুরের আটরশি এলাকায়। অনেক আগে তার স্বামী আলী হোসেন মিয়া মারা যান। মেয়ের বিয়ে হয়েছে, তিনি এখন স্বামীর সঙ্গে থাকেন। রহিমার ভিটামাটি তেমন কিছুই নেই। তাই রাজধানীর রামপুরা বউবাজার এলাকায় একটি ঝুপড়ি ঘর ভাড়া করে থাকেন। সেখানে ঘর ভাড়া দিতে হয় ১ হাজার ৫০০ টাকা।

এক প্রশ্নের জবাবে রহিমা বেগম বলেন, নতুন মাস, নতুন বছর কিছুই বুঝি না। আপনার কাছেই প্রথম শুনলাম। ভালো খাওয়ান পাইলেই প্রতিদিনই আমার নতুন বছর। ভালো খাওয়ান চাই, ভালো স্থান চাই।  

তিনি আরও বলেন, বয়স হয়েছে, কাজ করতে পারি না। বাম চোখে তেমন একটা দেখতেও পাই না। দুই বছর আগে ঢাকায় আসি। কোনো কাজ করতে না পারার কারণে ভিক্ষা শুরু করি।  

একপর্যায়ে তিনি কথা বলতে বলতে লোকদের মধ্যে ছুটে যান ভিক্ষা করতে। যেতে যেতে বলেন, বাবাজি, আপনি এসব রাখেন। এত কথা বুঝি না। কেউ ভিক্ষা না দিলে আমি খাইতে পারুম না, ঘর ভাড়া ১৫০০ টাকা সেটাও দিতে পারুম না।

এ সময় প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন বলেন, দেশে যত বাজেট হোক আর নতুন বছর আসুক। রহিমা বেগমের মতো মানুষদের কেউ পরিবর্তন করতে পারবে না। এরা রাস্তায় ভিক্ষা করতে করতে এভাবেই মারা যাবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১০৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০২২
এজেডএস/জেএইচটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa