ঢাকা, রবিবার, ২১ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

হবিগঞ্জে প্রতিপক্ষে ছুরিকাঘাতে নিহত এক 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২২
হবিগঞ্জে প্রতিপক্ষে ছুরিকাঘাতে নিহত এক  প্রতীকী ছবি

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লোকড়া ইউনিয়নে পাঁচ পীরের মাজারে গানের অনুষ্ঠান চলাকালে আফজাল চৌধুরী (৩৮) এক বাস চালককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এসময় অপরপক্ষের হামলায় আহত হন আরও কয়েকজন।


 
রোববার (৯ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আফজাল চৌধুরী লোকড়া ইউনিয়নের ফান্দ্রাইল গ্রামের জামাল মিয়া চৌধুরীর ছেলে। তিনি বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি) বাসের চালক ছিলেন।  
 
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার রাতে মাজারে বার্ষিক ওরশ উপলক্ষে মেলা ও গানের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রাত ১২টার দিকে গানের অনুষ্ঠান চলছিল। এ সময় পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে আফজাল চৌধুরীর সঙ্গে এংরাজ মিয়ার পক্ষের কয়েকজনের ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে এংরাজ মিয়ার পক্ষের লোকজন আফজালের বুকে ও মুখে ছুরিকাঘাত করে। এ সময় আফজালের সঙ্গে থাকা উজ্জ্বল চৌধুরী নামে আরেকজনকেও মারধর করা হয়।
 
পরে প্রত্যক্ষদর্শীরা আফজাল ও উজ্জ্বলকে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক আফজালকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনার পর নিহত আফজালের আত্মীয়-স্বজন এংরাজ মিয়ার পক্ষের লোকদের ওপর হামলা করলে কয়েকজন আহত হন।
 
উভয়পক্ষে আহতদের মধ্যে ফান্দ্রাইল গ্রামের মৃত বাগল চৌধুরীর ছেলে উজ্জ্বল চৌধুরী (৩৫), একই গ্রামের ফিরোজ চৌধুরীর ছেলে জিতু মিয়া চৌধুরী (৪০), রফিক উদ্দিন চৌধুরীর ছেলে সজল চৌধুরী (৪৫), বিলাল চৌধুরী (৩৮) ও রিপন চৌধুরীকে (৩৫) গুরুতর অবস্থায় সিলেট এমজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
 
এ বিষয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুক আলী জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

হাসপাতালে আসা উভয়পক্ষের লোকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আফজাল চৌধুরী ঢাকায় বিআরটিসি বাসের চালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সম্প্রতি তিনি ছুটিতে বাড়ি আসেন। এ ঘটনার পর উভয়পক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১০৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa