ঢাকা, রবিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

মাদরাসার টয়লেটে শিশু শিক্ষার্থীকে বলাৎকার!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৫৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২২
মাদরাসার টয়লেটে শিশু শিক্ষার্থীকে বলাৎকার! প্রতীকী ছবি

বরিশাল: বরিশাল নগরের লেচুশাহ মাদরাসার সাত বছরের শিশু শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের অভিযোগ উঠেছে ওই প্রতিষ্ঠানের দুই ছাত্রের বিরুদ্ধে।  

রোববার (৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় মাদরাসাশিক্ষকের সহায়তায় পালিয়ে যাওয়ার সময় শহিদ (১৫) নামের এক ছাত্রকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা।

এ সময় অপর অভিযুক্ত বেল্লাল (১৬) পালিয়ে যায়।  

ভুক্তভোগী শিশুর বাবা বলেন, তিন মাস আগে তার ছেলেকে লেচুশাহ মাদরাসার হাফিজি বিভাগে ভর্তি করেন। বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) একই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী শহিদ ও বেল্লাল ওই শিশুকে মাদরাসার টয়লেটে নিয়ে বলাৎকার করে। পরের দিন শুক্রবার ফের টয়লেটে নিয়ে বলাৎকারের চেষ্টা চালালে ওই শিশু চিৎকার করে বের হয়ে যায়। বিষয়টি জানাজানির ভয়ে শনিবার ওই শিশুর মুখ চেপে মারধর করে এবং মাদরাসার সাত তলা ভবনের ছাদ থেকে ফেলে হত্যার হুমকি দেন। এরপর ওই দুই শিক্ষার্থীর সহায়তায় মাদরাসা থেকে বের হয়ে নগরীর দপ্তরখানার বাসায় গিয়ে মাকে বিষয়টি জানিয়ে অজ্ঞান হয়ে যায়।

বলাৎকারের বিচার দাবিতে ভুক্তভোগীর বাবা শনিবার বিষয়টি মাদরাসা কর্তৃপক্ষকে জানালে মিটিং করে সমাধানের আশ্বাস দেওয়া হয়। রোববার বিকেলেও ঘটনার কোনো বিচার না পেয়ে ৯৯৯ নম্বরে কল করে পুলিশ ডাকা হয়।  

এ খবরে পেয়ে দায়িত্বরত শিক্ষক মাদরাসার পেছনের দরজা দিয়ে অভিযুক্ত শহিদ ও বেল্লালকে বের করে দিয়ে পালাতে সহায়তা করেন। বিষয়টি স্থানীয়রা টের পেলে ধাওয়া দিয়ে শহিদকে আটক করে পুলিশে তুলে দেয়।  

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিমুল ক‌রিম বলেন, এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১০৫৭ ঘণ্টা, জানুয়া‌রি ১০, ২০২২
এমএস/জেএইচটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa