ঢাকা, সোমবার, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

অপরাধে জড়িত বিদেশিদের ফেরত পাঠাতে অর্থ চাওয়া হয়েছে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০২২
অপরাধে জড়িত বিদেশিদের ফেরত পাঠাতে অর্থ চাওয়া হয়েছে

ঢাকা: অপরাধের সঙ্গে জড়িত বিদেশি নাগরিকদের গ্রেফতার করে নিজ দেশে ফেরত পাঠানো জন্য অর্থ বরাদ্দ দিতে অর্থ মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। একই সঙ্গে দেশের বাইরে বাংলাদেশি যারা অপরাধের সঙ্গে জড়িত, তাদের বিষয়ে যাতে দূতাবাসগুলো সক্রিয় থাকে সেই নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে এ তথ্য জানান মন্ত্রী।

মোজাম্মেল হক বলেন, আমাদের দেশে কিছু বিদেশি নাগরিক আছেন, যাদের পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। তারা বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত। তাদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার করে সেইফ হোম বা ডিটেনশনের মধ্যে রেখে স্বদেশে ফেরত পাঠানোর জন্য অর্থ বরাদ্দে আমরা অর্থ মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করেছি।

তিনি বলেন, আমেরিকা সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কয়েকজন সদস্য সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করা হয়েছে। আমরা সেগুলো পর্যালোচনা করে মনে করেছি, সঠিক তথ্য না পাওয়ার কারণে বা কিছু ভুল তথ্যের কারণে, ইউটিউব বা ওই সমস্থ মিডিয়াতে যে সমস্থ তথ্যাবলি অহরহ প্রচারিত হয়, সেগুলো যথাযথভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করে, যাচাই-বাছাই না করে ওনারা এ মন্তব্য করেছেন।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আরও বলেন, আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করেছি, সঠিক তথ্যগুলো যেটা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য, সেগুলো যুক্তরাষ্ট্রের কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছে দেওয়া, যাতে তাদের এ ভুল ধারণা ভেঙে যায় এবং সেগুলো তারা সংশোধন করে। আমাদের পক্ষ থেকে সেই অনুরোধ আমরা রেখেছি।

পার্সেলের মাধ্যমে অবৈধ পণ্য পাচার হয় উল্লেখ করে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, সেজন্য আগে পোস্ট অফিসে এগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা হয়। এরকম তথ্য পাওয়া গেছে যে, পোস্ট অফিস থেকে ক্লিয়ারেন্স নিয়ে মাঝখানে গিয়ে হয়তো আবার সেটা চেঞ্জ হয়েছে। আগে পার্সেল কে পাঠাচ্ছে, সেগুলোর মধ্যে নাম থাকতো। এখন শুধু নাম থাকলে হবে না, আইডি কার্ড বা পরিচয়পত্রের পূর্ণাঙ্গ তথ্য থাকতে হবে। একজন তো ভুয়া নামও ব্যবহার করতে পারে। আমি হয়তো ভুল ঠিকানা দিয়েও পাঠাতে পারি। সেজন্য আইডি কার্ড অনুসারে পার্সেল পাঠাতে হবে এবং তার উপস্থিত থাকতে হবে।

বিদেশ থেকে আসা পার্সেল আগে জিপিওতে স্ক্যানিং হতো জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এখন এয়ারপোর্টে সেই প্যাকেটগুলো স্ক্যানিং হবে। সে ব্যবস্থার জন্য বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০২২
জিসিজি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa