ঢাকা, রবিবার, ২১ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

সালথায় সেই বীর মুক্তিযোদ্ধার পেঁয়াজের চারা ফের বিনষ্ট

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট   | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২০০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০২২
সালথায় সেই বীর মুক্তিযোদ্ধার পেঁয়াজের চারা ফের বিনষ্ট বিনষ্ট পেঁয়াজের জমিতে দিশেহারা হয়ে দাঁড়িয়ে আছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. কাজী মাইনুদ্দীন

ফরিদপুর: ফরিদপুরের সালথায় মো. কাজী মাইনুদ্দীন নামের সেই বীর মুক্তিযোদ্ধার আরও ৭ বিঘা জমির পেঁয়াজের চারা ফের বিষ দিয়ে নষ্ট করা হয়েছে।  

ক্ষতিগ্রস্ত ওই বীর মুক্তিযোদ্ধা উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের জোগারদিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান-প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক। একের পর এক জমির ফসল নষ্ট করার ফলে দিশাহারা হয়ে পড়েছেন তিনি।  

এর আগে গত ০৮ জানুয়ারি তার পেঁয়াজের দানা ও পেঁয়াজের চারা নষ্ট করা হয়। বিষয়টি নিয়ে বাংলানিউজসহ বেশ কয়েকটি জাতীয় দৈনিক ও অনলাইন পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হওয়ার পরও ফের ওই বীর মুক্তিযোদ্ধার জমির পেঁয়াজের চারা নষ্ট করায় স্থানীয় কৃষকদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ক্ষেতের পেঁয়াজের নিরাপত্তা নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় রয়েছেন তারা।  

বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. কাজী মাইনুদ্দীন অভিযোগ করে বাংলানিউজকে বলেন, বাড়ির সামনে জোগারদিয়া মাঠে থাকা আমার আরও ৭ বিঘা জমির মাত্র রোপণ করা পেঁয়াজের চারা ফের  বিষ দিয়ে নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। এর আগে ১৫ কেজি হালি পেঁয়াজের দানা ক্রয় করে রোপণ করেছিলাম। রোপণ করা সেই দানা থেকে যখন ছোট ছোট পেঁয়াজের চারাগাছ বের হতে শুরু করে, তখন তা বিষ দিয়ে নষ্ট করে দেওয়া হয়। পরে আমি হালি পেঁয়াজের চারা বাজার থেকে কিনে এনে ৬৩ শতাংশ জমিতে রোপণ করি। আমার এই চারাগুলোও বিষ দিয়ে বিনষ্ট করা হলো।  

তিনি আরও বলেন, ‘দিন যাচ্ছে আর বেড়ে উঠছে সব চাষিদের ক্ষেতের পেঁয়াজের চারা। সবাই এখন পেঁয়াজের চারা পরিচর্যার কাজে ব্যস্ত। আর আমার জমিগুলো ফাঁকা। আমি ক্ষেতে গেলেই পাগল হয়ে যাই। ক্ষেতের চিত্র দেখে চোখের পানি ধরে রাখতে পারি না। ’

তবে কারা তার ফসলের এভাবে ক্ষতি করে চলছে, তা সঠিকভাবে বলতে পারেননি তিনি।

সোনাপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান খায়রুজ্জামান বাবু বাংলানিউজকে বলেন, একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতার জমির ফসলের এমন ক্ষতি করা কোনোভাবেই কাম্য নয়। এটা শত্রুতা থেকে হয়েছে বলে আমার ধারণা। আমি এ ঘটনার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।  

সালথা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ জীবাংশু দাস বাংলানিউজকে বলেন, আগাছামুক্তনাশক ওষুধ দিয়ে ওই বীর মুক্তিযোদ্ধার জমির পেঁয়াজের চারাগুলো নষ্ট করা হয়েছে। আমরা নষ্ট হওয়া পেঁয়াজের ক্ষেতগুলো পরিদর্শন করেছি। চেষ্টা করছি কিছু জমির পেঁয়াজের চারা বাঁচাতে।

** বীর মুক্তিযোদ্ধার পেঁয়াজের চারা নষ্ট করে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

বাংলাদেশ সময়: ২১৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০২২
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa