ঢাকা, সোমবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

'রাইতের কষ্ট কিছুডা অইলেও কমবো'

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০২২
'রাইতের কষ্ট কিছুডা অইলেও কমবো'

'আমি গরিব, অন্ধ মানুষ। মানুষের বাইতে বাবইতে বিক্কা কইরা কুনুরহমে বাইচ্চা আছি।

আমার ইছতিরি মরিয়ম বেগম মাইষ্যের বাইতে কাম করে। শীতে আমরা খেতা গাও দেয়া ঘুমাই। শীতে আমরা অনেক কষ্টে আছিলাম। কম্বলডা পাউনে খুব বালা অইছে। অহন শীতের রাইতের কষ্ট কিছুডা অইলেও কমবো। '

কালের কণ্ঠ শুভসংঘের মাধ্যমে কম্বল পেয়ে কথাগুলো বলছিলেন ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার কাচিনা ইউনিয়নের তামাট গ্রামের প্রায় ৭৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ তারাপ খান।

ভালুকা উপজেলার তামাট ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসা মাঠে আজ রবিবার (১৬ জানুয়ারী) সকালে স্বাস্থবিধি মেনে কম্বল বিতারণ করা হয়। বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তায় এই শীতবস্ত্র বিতরণ করে কালের কণ্ঠ শুভসংঘ।

এ সময় শুভসংঘ ভালুকার সভাপতি রবিন খানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন শুভসংঘের শুভানুধ্যায়ী বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মাহাবুবুল আলম বাচ্চু, কালের কণ্ঠের প্রতিনিধি শুভসংঘ ভালুকার উপদেষ্টা মোখলেছুর রহমান মনির, ভালুকা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান সুমন, আবদুর রশিদ মাস্টার প্রমুখ।  

ভালুকা শুভসংঘের সাধারণ সম্পাদক আফজাল ফাহিম খান এজাজ, জাহিদুল ইসলাম জিনু, আরিফ মো. উদয়, নাহিদ খান, রাকিব খানসহ অন্যান্যরা ওই সময় উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে ভালুকা পৌর সভার পূর্বভালুকা গ্রামের প্রায় ৫০ জন হতদরিদ্রের মাঝে শুভসংঘ ভালুকার মাধ্যমে বিতরণ করা হয় বসুন্ধরা গ্রুপের কম্বল।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০২২
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa