ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

অন্যায়ের ভারে ক্ষমতার মঞ্চও ভেঙে পড়বে: রব

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৭, ২০২৩
অন্যায়ের ভারে ক্ষমতার মঞ্চও ভেঙে পড়বে: রব ফাইল ছবি

ঢাকা: সাংবিধানিক-গণতান্ত্রিক ও নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে ধ্বংস করাসহ অন্যায়ের ভারে সরকারের ক্ষমতার মঞ্চ যে কোনো সময় ভেঙ্গে পড়বে বলে মন্তব্য করেছেন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসু ভিপি জেএসডি সভাপতি আ স আবদুর রব।

শনিবার (৭ জানুয়ারি) বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আ স ম আবদুর রব-এর সঙ্গে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি তৌফিক উজ জামান পিরাচা’র নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল মতবিনিময় ও সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন।

উত্তরা বাসভবনে মত বিনিময়কালে তিনি বলেন, সাংবিধানিক-গণতান্ত্রিক ও নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে ধ্বংস করাসহ অন্যায়ের ভারে সরকারের ক্ষমতার মঞ্চ যে কোনো সময় ভেঙ্গে পড়বে। জনগণ, আইনের শাসন এবং সংবিধানের ওপর সরকার নির্ভর করছে না। সরকার নির্ভর করছে শুধুমাত্র বল প্রয়োগের ওপর।

তিনি আরও বলেন, সরকার জনগণের ভোটাধিকার ছিনতাই করেও অন্যায়ের পক্ষেই সাফাই গেয়ে চলছে। ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার ভয়ে এ সরকার অবাধ-সুষ্ঠু নির্বাচন করতে অক্ষম। ২০১৮ সালে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টকে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের ওপর ভরসা রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সরকার রাতের ভোটের ওপর ভরসা রেখেছে। সুতরাং নির্বাচনের প্রশ্নে এ সরকারের ওপর ভরসা করার কোনো উপায় নেই।

আ স ম রব বলেন, একটি গণতান্ত্রিক ও সমতাভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠার রাজনৈতিক সংগ্রামে, বৃহত্তর জনতার স্বার্থে অঙ্গীকারাবদ্ধ ইতিহাস সচেতন লড়াকু নেতৃত্ব প্রয়োজন। রাষ্ট্র রূপান্তরে ‘অংশীদারিত্বের গণতন্ত্র’ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে গড়ে ওঠা গণশক্তির সক্রিয় ও শক্তিমান বিকাশ বিদ্যমান সংকট নিরসনে রাজনৈতিক দিশা খুঁজে পাবে। সঙ্ঘবদ্ধ লড়াই-সংগ্রামের মাধ্যমে ফ্যাসিবাদী ব্যবস্থা উচ্ছেদে গণঅভ্যুত্থান সৃষ্টিতে ছাত্র সমাজকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মাহমুদুল হাসান মুক্তার, সহ-সভাপতি গোলাম ফারুক সরকার সুমন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মোস্তফা আলী, অর্থ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন রাজু ও কেন্দ্রীয় সদস্য মিল্লাত হোসেনসহ কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৭, ২০২৩
এমএইচ/এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।