ঢাকা, সোমবার, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ শাবান ১৪৪৫

রাজনীতি

চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০০৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৯, ২০২৩
চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ

ফরিদপুর: সাবেক মন্ত্রী ও রাজনীতিবিদ চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ শনিবার (৯ ডিসেম্বর)। ২০২০ সালের এই দিনে তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ ১৯৪০ সালের ৩ মে ফরিদপুর জেলার সম্ভ্রান্ত বাঙালি জমিদার পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতামহ ছিলেন জমিদার চৌধুরী মঈজউদ্দিন বিশ্বাস। তার বাবা ইউসুফ আলী চৌধুরী (মোহন মিয়া) ব্রিটিশ ও পাকিস্তান শাসনামলে উপমহাদেশের একজন প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ছিলেন। তার চাচা চৌধুরী আব্দুল্লাহ জহিরউদ্দিন (লাল মিয়া) প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান সরকারের মন্ত্রিসভায় ছিলেন এবং ছোট চাচা এনায়েত হোসেন চৌধুরী পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের সদস্য ছিলেন। ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের সিংহ পুরুষ হাজী শরীয়তউল্লাহর বংশধর বাহাদুরপুরের পীর বাদশাহ মিয়া সাহেব তার নানা ছিলেন।

চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ ১৯৭৯ সালের জাতীয় নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান তাকে বৃহত্তর ফরিদপুরের প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদাসম্পন্ন ডিস্ট্রিক্ট ডেভেলপমেন্ট কো-অর্ডিনেটর (ডিডিসি) হিসেবে নিয়োগ দেন।

ফরিদপুর-৩ আসন থেকে তিনি দ্বিতীয়, পঞ্চম, ষষ্ঠ, সপ্তম এবং অষ্টম জাতীয় সংসদে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৮১ সালে তিনি বিচারপতি আব্দুস সাত্তারের নেতৃত্বাধীন সরকারের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯১ সালে খালেদা জিয়ার সরকারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী; ২০০১ সালে খাদ্য, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বপালন করেন তিনি। চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ সর্বশেষ বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) ভাইস চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।  

দিনটি উপলক্ষে চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ স্মৃতি পরিষদ ফরিদপুরের ময়েজমঞ্জিল পারিবারিক কবরস্থানে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন, ফাতিহা পাঠ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে। পাশাপাশি ফরিদপুরের মুসলিম মিশন এতিমখানায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০০০২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৯, ২০২৩
এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।