ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৩ জুন ২০২৪, ০৫ জিলহজ ১৪৪৫

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

চাহিদার তুলনায় গ্যাসের ঘাটতি ৫০০ এমএমসি: প্রতিমন্ত্রী

স্পেশাল করেসন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০১ ঘণ্টা, মে ৭, ২০২৪
চাহিদার তুলনায় গ্যাসের ঘাটতি ৫০০ এমএমসি: প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা: বর্তমানে দেশে চাহিদার তুলনায় ৫০০ এমএমসি গ্যাসের ঘাটতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। ভবিষ্যতে বাসাবাড়িতে আর গ্যাসের সংযোগ দেওয়া হবে না বলেও তিনি জানান।

মঙ্গলবার (৭ মে) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে সংরক্ষিত আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ফরিদা ইয়াসমিনের এক সম্পূরক প্রশ্নের উত্তরে প্রতিমন্ত্রী এ সব কথা জানান। এ সময় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন।

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, আমাদের দেশে উৎপাদিত গ্যাসের পরিমাণ হলো ১৭০০ এমএমসি, সেটা আমরা দেশের থেকে পাই। আমরা আমদানি করি ১১০০ এমএমসি। প্রায় তিন হাজার পরিমাণ মতো গ্যাস এখন আমরা দিতে পারছি লাইনে। আমাদের প্রয়োজন হলো ৩৪০০ থেকে ৩৫০০ এমএমসি অর্থাৎ ৫০০ এমএমসির মতো গ্যাস আমাদের প্রতিবার চাহিদার মধ্যে গ্যাপ থাকে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিল্পে গ্যাস পাচ্ছে না, আমাদের কাছে এখনও লিখিতভাবে কোনো অভিযোগ আসে নাই যে, কোনো শিল্পকারখানা গ্যাস পায় না। আমরা চেষ্টা করছি সেখানে নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস রাখার জন্য। বাসাবাড়িতে গ্যাসের সমস্যা আছে, প্রেসারের সমস্যা আছে, সে কারণে আমরা বিকল্প ব্যবস্থা করেছি, সেটা হলো এলপিজি। এ সংসদে আমি গত ১০টি বছর বলে আসছি বিকল্প হিসেবে এলপিজি ব্যবহার করেন। পরবর্তীতে আমরা বাসাবাড়িতে আর গ্যাসের সংযোগ দিচ্ছি না বা দেবও না। আমাদের উদ্দেশ্যে হলো পাইপলাইন গ্যাস আমরা ইন্ডাস্ট্রি এবং বিদ্যুৎ তৈরি করার ক্ষেত্রেই কেবল ব্যবহার করব। আর এলপিজি বাসাবাড়ি, আবাসিক খাত এবং গাড়িতে ব্যবহার করার জন্য ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়েছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৯ ঘণ্টা, মে ০৭, ২০২৪
এসকে/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।