ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

খেলা

সংবর্ধনা পেল বসুন্ধরা কিংস নারী এবং পুরুষ দল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২০৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২৩
সংবর্ধনা পেল বসুন্ধরা কিংস নারী এবং পুরুষ দল

বসুন্ধরা কিংস ব্যাডমিন্টন কার্নিভাল ২০২৩ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বসুন্ধরা কিংস নারী এবং পুরুষ ফুটবল দলকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। হ্যাটট্রিক লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় এই সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে দুই দলকে।

‘বসুন্ধরা কিংস উইন্টার ব্যাডমিন্টন কার্নিভালে’র টাইটেল স্পন্সর হয়েছে বসুন্ধরা কিংস, পাওয়ার্ড বাই এএলএম রিয়েল ইস্টেট। বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় অবস্থিত ঢালি ফিটনেস সেন্টারে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

গম ডিসেম্বর মাসেই নারী ২০২১-২২ ফুটবল লিগে হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে বসুন্ধরা কিংস নারী ফুটবল দল। তিন আসরে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তারা। এর আগের দুই মৌসুম ২০১৯-২০ এবং ২০২০-২১ মৌসুমেও হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন সাবিনা-কৃষ্ণারা। অন্যদিকে বসুন্ধরা কিংস পুরুষ ফুটবল দল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলে অভিষেকেই হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইতিহাস গড়েছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে নারী এবং পুরুষ দলের খেলোয়াড় এবং কোচিং স্টাফদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন বসুন্ধরা কিংসের প্রেসিডেন্ট এবং বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ইমরুল হাসান, ডেইলি সান পত্রিকার সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরী, কালের কণ্ঠের এডিটর ইন চিফ ইমদাদুল হক মিলন, বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার সম্পাদক নঈম নিজাম, নিউজ ২৪ এর নির্বাহী সম্পাদক রাহুল রাহা।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। এর পর আমন্ত্রিত অতিথিরা বক্তব্য রাখেন। সকলেই বসুন্ধরা কিংসের প্রেসিডেন্ট ইমরুল হাসানের প্রশংসা করেন এবং তাকে ধন্যবাদ জানান।

‘ডেয়ার টু বি অ্যা চ্যাম্পিয়ন’ স্লোগানে বসুন্ধরা কিংস ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপ ২০২৩ শুরু হচ্ছে আজ (২ জানুয়ারি) থেকে। ১৪ দলে ভাগ হয়ে মোট ২৮ জন শাটলার এখানে অংশগ্রহণ করছেন। দুটি গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে দলগুলোকে। আগামী ১০ জানুয়ারি এই আসরের ফাইনাল আয়োজিত হবে। এবারের আসরে বসুন্ধরা কিংসের প্রেসিডেন্ট ইমরুল হাসানও অংশ নিচ্ছেন।

উইন্টার ব্যাডমিন্টন কার্নিভালের ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং জেনারেল সেক্রেটারি আতাউর রহমান ঢালি এবং জসিম উদ্দিন বসুন্ধরা কিংসের প্রেসিডেন্ট ইমরুল হাসানের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন।

উইন্টার ব্যাডমিন্টন কার্নিভালের আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে ইমরুল হাসান বলেন, ‘টিম ব্যাডমিন্টন আমাদের নারী এবং পুরুষ ফুটবল দলকে সম্মানিত করেছে। এটা আমাদের জন্য একটি বড় প্রাপ্তি। বাংলাদেশের ফুটবলে বসুন্ধরা কিংস একটি ব্রান্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আমি দুই দলের খেলোয়াড় এবং কোচিং স্টাফদের ধন্যবাদ জানাই। লিগে নারী এবং পুরুষ দলের হ্যাটট্রিক শিরোপা জয় বিরল বিষয়। নারী ফুটবল দল তিন আসরেই অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এটা বিরল। আমরা গিনেস কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করছি। এই রেকর্ড গিনেস বুকে লেখা হলে বাংলাদেশের ফুটবলে বসুন্ধরা কিংসের নাম আজীবন থাকবে। ’

বাংলাদেশ সময়:

এআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।