ঢাকা, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২২ মে ২০২৪, ১৩ জিলকদ ১৪৪৫

খেলা

সোহান ঝড়ে ঢাকাকে বিদায় করে প্লে-অফে রংপুর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩০৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩
সোহান ঝড়ে ঢাকাকে বিদায় করে প্লে-অফে রংপুর ছবি : শোয়েব মিথুন

শুরুতে ঢাকা ডমিনেটর্সকে আটকে রাখা গেছে অল্পতেই। বল হাতে দারুণ করেছেন বোলাররা।

এরপর ব্যাট করতে নেমে শুরুতে কিছুটা ধাক্কা খেয়েছিল রংপুর রাইডার্স। তবে অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহানের ঝড় ও রনি তালুকদারের দৃঢ়তায় সহজেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় রংপুর।  

শুক্রবার মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিপিএলের ম্যাচে ঢাকা ডমিনেটর্সকে ২ উইকেটে হারিয়েছে রংপুর রাইডার্স। আগে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৩০ রানের সংগ্রহ পায় ঢাকা। জবাব দিতে নেমে ৩ বল আগেই জয় নিশ্চিত করে রংপুর। এই জয়ের পর ৯ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে প্লে অফ খেলা নিশ্চিত হয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটির। অন্যদিকে ১১ ম্যাচের তিনটিতে জেতা ঢাকার বিদায় নিশ্চিত হয়েছে।

টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই চাপে ছিল ঢাকা। দলীয় ১১ রানে প্রথম ব্যাটার হিসেবে সাজঘরে ফেরত যান মোহাম্মদ মিঠুন। ২ বল খেলে ১ চারে ৫ রান করে রান আউট হন তিনি। পরের ওভারে আফগান পেস বোলিং অলরাউন্ডার আজমতুল্লাহর বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন অধিনায়ক নাসির হোসেন। ৩ বল খেলে করেন ২ রান।   

আরেক ওপেনার সৌম্য সরকারও পারেননি চাপের মুখে হাল ধরতে। ১২ বল খেলে কেবল ৩ রান করে আজমতুল্লাহর দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন এই বাঁহাতি ব্যাটার। এরপর আব্দুল্লাহ আল মামুন ও অ্যালেক্স ব্লেক ধাক্কা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন।  

কিন্তু তারাও খুব বেশিদূর যেতে পারেননি। ২৬ বল খেলে ২ চার ও ১ ছক্কায় সর্বোচ্চ ২৯ রান এসেছে আরিফুল হকের ব্যাট থেকে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৩ রান করেছেন মামুন, ২৭ বল খেলে ১ চার ও ছক্কায় এই রান করেন তিনি। রংপুরের পক্ষে ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ২২ রান দিয়ে দুই উইকেট নেন আজমতউল্লাহ। এক উইকেট করে পান মেহেদী হাসান, হারিস রউফ, হাসান মাহমুদ ও মোহাম্মদ নাওয়াজ।  

ঢাকাকে জবাব দিতে নেমে শুরুতে কিছুটা ধাক্কাই খেয়েছিল রংপুর রাইডার্স। ইনিংসের দ্বিতীয় বলে কোনো রান না করেই শরিফুল ইসলামের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে আউট হন নাঈম শেখ। এরপর তিন নম্বরে খেলতে নেমে ৫ বলে ৪ রান করে আউট হন মাহেদী হাসানও, এই ব্যাটারও শিকার হন শরিফুলের।  

তার বিদায়ের পর দলের হাল ধরেন অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান ও রনি তালুকদার। তাদের জুটিতে এসেছে ৯৫ রান। সোহান ব্যাট হাতে রীতিমতো ঝড় তুলেন। মাঝে ইনজুরিতে ভোগা রংপুর অধিনায়ক ফেরেন স্বরূপে। ৭ চার ও ৩ ছক্কায় ৩৩ বলে তার ব্যাট থেকে আসে ৬১ রান। শরিফুলের বলে সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ দেন তিনি।

উদ্বোধনী ব্যাটার রনি তালুকদার অবশ্য ফেরেন আগেই। ৩ চারে তার ব্যাট থেকে ৩৯ বলে আসে ৩৪ রান। সোহান ও রনির বিদায়ের পর দ্রুত কিছু উইকেট হারায় রংপুর। ২২ রানে তারা হারায় ৬ উইকেট। তবে শেষ অবধি জয় তুলে নেয় রংপুরই।  

সংক্ষিপ্ত স্কোর: 

ঢাকা ডমিনেটর্স- ১৩০/৮ (আরিফুল ২৬ বলে ২৯, মামুন ২৭ বলে ২৩, ব্লেক ১১ বলে ১৮; আজমতুল্লাহ ২২/৩, রউফ ১৯/১, মাহেদী ৩০/১, মাহমুদ ২৮/১, নেওয়াজ ১/১)

রংপুর রাইডার্স- ১৩৩/৮ (নুরুল ৩৩ বলে ৬১, রনি তালুকদার ৩৯ বলে ৩৪, শামীম হোসেন ৮ বলে ১২; নাসির হোসেন ৪-০-২০-৪, শরিফুল ইসলাম ৪-১-১৮-৩)

ফল : রংপুর রাইডার্স দুই উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : নুরুল হাসান সোহান।

বাংলাদেশ সময়: ২৩০৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২৩
এমএইচবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।