ঢাকা, শনিবার, ৩০ চৈত্র ১৪৩০, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

তারার ফুল

ফিরে দেখা ২০১৫ : বলিউড

সালমান খানের ৫০০ কোটি রুপির বছর

বৃষ্টি শেখ, নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩৩৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৫
সালমান খানের ৫০০ কোটি রুপির বছর

চলতি বছর বলিউডে ছিলো সালমান খানের জয়জয়কার। তিনি যখনই যা করেছেন, তা চলে এসেছে খবরের শিরোনামে।

তাকে ঘিরে যা কিছু হয়েছে, বাদ যায়নি সেগুলোও। ক্যারিয়ারের সোনালি সময় কাটছে তার। বলা যায় ২০১৫ বদলে দিয়ে সল্লুর জীবন। এই পরিবর্তনের পরতে পরতে আছে সাফল্য।

গাড়ি চাপা দিয়ে মানুষ হত্যার মামলা থেকে বোম্বে হাইকোর্টের রায়ে খালাস পেয়ে যাওয়া, ‘বিগ বস’-এর নবম আসর সঞ্চালনা, ৫০তম জন্মদিন উদযাপন, ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ও ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ ছবির তুমুল সাফল্যের সুবাদে প্রথমবারের মতো একই বছরে ৫০০ কোটি রুপির মুনাফার নায়ক হওয়া, স্বদেশে সবচেয়ে লাভজনক তারকার খেতাব পাওয়া, বহির্বিশ্বে সর্বোচ্চ আয়ের অভিনেতা হওয়া, নিজের প্রতিষ্ঠান সালমান খান ফিল্মসের প্রথম ছবির (বজরঙ্গি ভাইজান) সাফল্য, সুরজ বরজাতিয়ার পরিচালনায় ১৬ বছর পর কাজ করা, শাহরুখ খ‍ানের সঙ্গে বন্ধুত্ব, রোমানিয়ান টিভি তারকা লুলিয়া ভানটুরের সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন, ‘সুলতান’ ছবির কাজ শুরু- এসব কারণে আলোচিত ছিলেন সালমান। তিনিই এবারের বর্ষসেরা তারকা।

২০১৫ ছিলো রেকর্ড ভাঙা-গড়ার বছর। দুটোই একাধিকবার সাফল্যের সঙ্গে করে দেখিয়েছেন সালমান। তার ছবি শুধু আয়ই করেনি, ঝড় বইয়ে দিয়েছে টাকায় টাকায়। সব তারকা মিলে যা পারেননি, তিনি একাই তার চেয়ে বেশি মুনাফা এনে দিয়েছেন প্রযোজককে।

‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ সর্বকালের সেরা ওপেনিংয়ের রেকর্ড গড়েছে। মুক্তির প্রথম দিনেই এর আয় হয়েছে ৪০ কোটি ৩৫ লাখ রুপি। এটাই বহির্বিশ্বে দ্রুত (চার দিনে) ২৫০ কোটি রুপি আয় করা ছবির তালিকায় শীর্ষে আছে। দিওয়ালিতে মুক্তি পাওয়া সর্বকালের সব ছবির ক্ষেত্রেও বেশি আয়ে রেকর্ড গড়েছে এটি। চারদিনে সর্বোচ্চ মোট আয়ও এর। ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত সব ছবির আয়কে ছাড়িয়েছে। ঈদ পূর্ব সময়ে সেরা ওপেনিং পেয়েছে ছবিটি।

এদিকে বছরের শেষে এসে শাহরুখ খানের ‘দিলওয়ালে’ ও সঞ্জয়লীলা বানসালির ‘বাজিরাও মাস্তানি’র একই দিনে মুক্তি পাওয়ায় আলোচনা তৈরি হয়েছে। বক্স অফিসে এ দুটি ছবির লড়াই বেশ জমজমাট হয়েছে। একইভাবে এসএস রাজামৌলির দক্ষিণী ছবি ‘বাহুবলী’র হিন্দি সংস্করণ ১০০ কোটি রুপিরও বেশি আয় করে সাড়া ফেলেছে।

বছরের শীর্ষ ১০ ব্যবসাসফল ছবির তালিকায় সংখ্যার দিক দিয়ে সালমানকে ছাড়িয়ে গেছেন অক্ষয় কুমার। তার ছবি আছে তিনটি- ‘বেবি’, ‘সিং ইজ ব্লিং’ ও ‘গাব্বার ইজ ব্যাক’। এ ছাড়া শাহরুখ (দিলওয়ালে), রণবীর সিং (বাজিরাও মাস্তানি), জন অ্যাব্রাহামের (ওয়েলকাম ব্যাক) ছবি আছে একটি করে। নায়িকাদের মধ্যে কাজল (দিলওয়ালে), কারিনা কাপুর খান (বজরঙ্গি ভাইজান, গাব্বার ইজ ব্যাক), সোনম কাপুর (প্রেম রতন ধন পায়ো), শ্রদ্ধা কাপুর (এবিসিডি টু) পেয়েছেন সাফল্যের স্বাদ।

শীর্ষ ১০ ব্যবসাসফল ছবি (রুপিতে)
১. বজরঙ্গি ভাইজান (৩২০ কোটি ৩৪ লাখ)
২. প্রেম রতন ধন পায়ো (২০৭ কোটি ৪০ লাখ)
৩. তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস (১৫২ কোটি)
৪. দিলওয়ালে (১১০ কোটি ৭৬ লাখ)
৫. বাজিরাও মাস্তানি (১০৮ কোটি ৭০ লাখ)
৬. এবিসিডি টু (১০৫ কোটি ৭৪ লাখ)
৭. বেবি (৯৫ কোটি ৫০ লাখ)
৮. ওয়েলকাম ব্যাক (৯৪ কোটি ৮৭ লাখ)
৯. সিং ইজ ব্লিং (৯০ কোটি ২৫ লাখ)
১০. গাব্বার ইজ ব্যাক (৮৬ কোটি)

অপ্রত্যাশিত সাফল্য
দম লাগাকে হেইশা (আয়ুষ্মান খুরানা ও ভূমি পেড়নেকর), পিকু (অমিতাভ বচ্চন, ইরফান খান, দীপিকা পাড়ুকোন), এনএইচ টেন (আনুশকা শর্মা), তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস (কঙ্গনা রনৌত, মাধবন), বদলাপুর (বরুণ ধাওয়ান, ইয়ামি গৌতম, নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি), তলবার (কঙ্কনা সেন শর্মা, ইরফান খান), দৃশ্যম (অজয় দেবগণ, টাবু), পেয়ার কা পাঞ্চনামা টু (কার্তিক আরিয়ান)।

প্রশংসিত ছবি
দম লাগাকে হেইশা, মাসান, তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস, পিকু, তামাশা, বজরঙ্গি ভাইজান, বাজিরাও মাস্তানি, বদলাপুর, তিতলি, ধানাক, মার্গারিটা উইথ অ্যা স্ট্র, দিল ধাড়াকনে দো, এবিসিডি টু, এনএইচটেন, অ্যাংরি ইন্ডিয়ান গডেসেস, তলভার, কিচ্ছা, মাঝি-দ্য মাউন্টেন ম্যান, কৌন কিতনে পানি মে, ভাগ জনি, মিথুরিয়া গ্যাংস্টারস, হাওয়াইজাদা।

ফ্লপ ছবি
বোম্বে ভেলভেট (রণবীর কাপুর-আনুশকা শর্মা), শামিতাভ (অমিতাভ বচ্চন, ধানুষ ও অক্ষরা হাসান), কাট্টি বাট্টি (ইমরান খান-কঙ্গনা রনৌত), অল ইজ ওয়েল (অভিষেক বচ্চন-অসিন), বেঙ্গিস্তান (রীতেশ দেশমুখ-পুলকিত শর্মা)।

প্রশংসিত অভিনয়শিল্পী
শেফালি শাহ (দিল ধাড়াকনে দো), মৌসুমী চ্যাটার্জি (পিকু), সুশান্ত সিং রাজপুত (ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সী), আদিল হুসেন (ম্যায় অউর চার্লস), কালকি কোচলিন (মার্গারিটা উইথ অ্যা স্ট্র), নীরাজ কবি (তলবার), তিলোত্তমা সোম (নয়নতারার নেকলেস), ইরফান খান (কিচ্ছা), তিসকা চোপড়া (রহস্য), নমন জৈন (হাওয়াইজাদা)।

সম্ভাবনাময় নতুন
ভূমি পেড়নেকর (দম লাগাকে হেইশা), সুরজ পাঞ্চোলি (হিরো), ভিকি কৌশল (মাসান), হারশালি মালহোত্রা (বজরঙ্গি ভাইজান), ওমকার কাপুর (পেয়ার কা পাঞ্চনামা টু), পাবলিন গুজরাল (অ্যাংরি ইন্ডিয়ান গডেসেস), শশাঙ্ক অরোরা (তিতলি), কপিল শর্মা (কিস কিসকো পেয়ার কারু), আথিয়া শেঠি (হিরো)।

বাংলাদেশ সময়: ০৩২৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৫
বিএসকে/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

তারার ফুল এর সর্বশেষ

welcome-ad