ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

পর্যটন

প্রথম দিন দুই জাহাজে সেন্টমার্টিন গেলেন ৬১০ পর্যটক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২৩
প্রথম দিন দুই জাহাজে সেন্টমার্টিন গেলেন ৬১০ পর্যটক পর্যটকদের নিয়ে সেন্ট মার্টিনের উদ্দেশ্যে ছুটে যাচ্ছে এমভি পারিজাত -ছবি: সংগৃহীত

কক্সবাজার: দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল শুরু হয়েছে। শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) সাড়ে ৯টার দিকে প্রথমদিনে টেকনাফ দমদমিয়া জেটি থেকে ৬১০ যাত্রী নিয়ে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় দুটি জাহাজ।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন শনিবার (১৪ জানুয়ারি) থেকে জাহাজের সংখ্যা আরও বাড়বে।

সি ক্রুজ অপারেটরস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (স্কোয়াব) সভাপতি তোফায়েল আহমদ জানান, ‘চলতি পর্যটন মৌসুমে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিন নো-রুটে জাহাজ চলাচল শুরু হয়েছে।  শুক্রবার প্রথমদিন সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এমভি পারিজাত ও এমভি রাজহংস নামের দুটি জাহাজ ৬১০জন যাত্রী নিয়ে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে। শনিবার থেকে অন্যান্য জাহাজগুলোও চলাচল করবে।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো. আবু সুফিয়ান জানান, ‘সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরিবেশের কিছু শর্তসাপেক্ষে জাহাজ চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। পরে অন্যান্য জাহাজগুলো সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে চলাচল করতে পারবে। ’

ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব কক্সবাজার (টুয়াক) সভাপতি আনোয়ার কামাল বলেন, পর্যটন মৌসুমের আর মাত্র দুই মাস সময় বাকি আছে। এই দুই মাসে আমরা পর্যটকদের সেন্টমার্টিন ভ্রমণের আনন্দ দিতে চাই।

তিনি বলেন, টেকনাফ-সেন্টমার্টিনে অনেক শিক্ষার্থী ভ্রমণ করে। আবার অনেক অসচ্ছল লোকজনও সেন্টমার্টিন ভ্রমণ করতে চায়। জাহাজ মালিকদের আমরা অনুরোধ করবো যারা অক্ষম তাদের টিকিটমূল্য বিবেচনা করতে। সর্বোপরি আমরা আশা রাখছি, পর্যটকরা নিরাপদে সেন্টমার্টিন ভ্রমণ করতে পারবেন।

উল্লেখ্য, নাফনদীতে নাব্রতা সংকট ও মিয়ানমারে চলমান সংঘর্ষের কারণ দেখিয়ে চলতি পর্যটন মৌসুমে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখে প্রশাসন। এ কারণে টেকনাফ থেকে এতদিন কোনো জাহাজ সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে চলাচল করেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২৩
এসবি/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।