ঢাকা, রবিবার, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২১ শাবান ১৪৪৫

ব্যাংকিং

নারী উদ্যোক্তাদের সম্মাননা দিলো অগ্রণী ব্যাংক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১৩ ঘণ্টা, মার্চ ৬, ২০২৩
নারী উদ্যোক্তাদের সম্মাননা দিলো অগ্রণী ব্যাংক ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: আন্তর্জাতিক নারী দিবসকে কেন্দ্র করে অগ্রণী ব্যাংক ও দুয়ারের সম্মিলিত উদ্যোগে ব্যাংকের নারী এজেন্ট এবং ঋণগ্রহীতা সফল উদ্যোক্তাদের সম্মাননা দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (৬ মার্চ) রাজধানীর মতিঝিলে অগ্রণী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এই ‘অগ্রণী দুয়ার ব্যাংকিং নারী উদ্যোক্তা সম্মাননা’ দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, দুয়ারের সঙ্গে সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অগ্রণী ব্যাংকের কাজকে আরও সহজ করার লক্ষ্যে, দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর দোরগোড়ায় ব্যাংকিং সেবা পৌঁছে দিতে এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের হাত ধরে ‘অগ্রণী দুয়ার ব্যাংকিং’ এর পথচলা শুরু। প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলিতে ব্যাংক সেবা পৌঁছে দেওয়ার মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে আর্থিক অন্তর্ভুক্তির আওতায় নিয়ে আসার লক্ষ্যে দুয়ার ব্যাংকিং বর্তমানে ৬১ জেলা ও ২৮০টি উপজেলায় প্রায় ৬০০টি আউটলেটকে সঙ্গে নিয়ে সব প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে স্বচ্ছতা ও নিরাপত্তার মাধ্যমে সরকারি প্রণোদনা, বিভিন্ন প্রকার ভাতা, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী ভাতার পাশাপাশি সব ব্যাংকিং সেবা দিয়ে যাচ্ছে।

প্রারম্ভিক সময়কাল থেকে আর্থিক অন্তর্ভুক্তিতে নারীর ক্ষমতায়নে দুয়ার সর্বদাই সহায়ক ভূমিকা পালন করে আসছে; এরই ফলশ্রুতিতে দুয়ারে কর্মরত ব্যক্তিদের মধ্যে প্রায় ৩০ শতাংশ কর্মী নারী এবং ভবিষ্যৎ নারীদের প্রযুক্তি খাতে অংশগ্রহণের দ্বার খুলে দিচ্ছে দুয়ার সার্ভিসেস লি.। বর্তমানে দুয়ার ব্যাংকিংয়ের ৫১ জন নারী এজেন্ট এবং প্রায় ১ হাজার নারী কর্মী ব্যাংকিং পেশার মতো সম্মানজনক পেশায় নিয়োজিত আছেন এবং এ ধারা ক্রমবর্ধমান। এছাড়াও অগ্রণী দুয়ার ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অর্জিত ৭ লাখ ব্যাংক অ্যাকাউন্টের মধ্যে প্রায় ৫২ শতাংহ ব্যাংক অ্যাকাউন্টের গ্রাহক নারী। ২০২২ সালে প্রায় ১০০ জন নারী গ্রাহক তাদের জীবনযাত্রার মানোয়মনে দুয়ার ব্যাংকিংয়ের সহায়তায় অগ্রণী ব্যাংকের ঋণ সেবা নিয়ে ব্যবসা শুরু করে সফলতা অর্জন করেছেন।

অগ্রণী ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক (এমডি) রুবানা পারভীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্যাংকের পরিচালক তানজিনা ইসমাইল। এছাড়া অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক রেজিনা পারভীন ও পারভীন আকতার। পাশাপাশি দুয়ারের কর্মকর্তা, বিভিন্ন বিভাগের নারী নির্বাহী এবং সম্মাননা প্রাপ্ত দুয়ার ব্যাংকিংয়ের নারী উদ্যোক্তা ও ঋণগ্রহীতা উদ্যোক্তা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রত্যেক বক্তা নারীর সমতা ও ক্ষমতায়নের যৌক্তিকতা তুলে ধরে তাদের প্রতি সব ধরনের বৈষম্য, বিরূপতা বিলোপ করে নারীর অগ্রযাত্রাকে আরও বেগবান করার আহ্বান জানান। পাশাপাশি নারী উদ্যোক্তারা তাদের সংগ্রামের গল্প ও গৌরবগাঁথা তুলে ধরেন। এ ধরনের স্বীকৃতি নারীর ক্ষমতায়ন ও নারীবান্ধব ব্যবসায়িক পরিবেশ গড়ে তুলতে ও দেশের আরও অনেক নারীকে ব্যাংকিং ব্যবসায় অনুপ্রাণিত করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়।

প্রধান অতিথি তানজিনা ইসমাইল তার বক্তব্যে নারীদের নিজ উদ্যোগে স্বাবলম্বী হওয়ার আহ্বান জানান।   ওমর খৈয়ামের বিখ্যাত উক্তি ‘ওগো নারী শ্রেষ্ঠ তুমি অবনীর, গোলাপে গঠিত যেন ভিতর বাহির’ উল্লেখ করে বলেন, সুযোগ ও সম্ভাবনা কাজে লাগিয়ে আমাদের মা-বোনেরা তাদের দক্ষতা, ইনোভেটিভ চিন্তা-ভাবনা দিয়ে কাজ করে তার প্রমাণ দিচ্ছেন। আমি সর্বাঙ্গে অগ্রণী দুয়ার ব্যাংকিংয়ের সফলতা কামনা করছি।

রুবানা পারভীন তার সমাপনী বক্তব্যে নারীদের যে কোনো ধরনের চ্যালেঞ্জ শক্ত হাতে মোকাবিলা করার আহ্বান জানিয়ে সম্মাননা প্রাপ্ত সবাইকে অভিনন্দন জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৬ ঘণ্টা, মার্চ ৬, ২০২৩
এমকে/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।