ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

কর্পোরেট কর্নার

‘কালার নেক্সট-২০২৩’ রিপোর্ট প্রকাশ করল এশিয়ান পেইন্টস

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৫ ঘণ্টা, মে ৩০, ২০২৩
‘কালার নেক্সট-২০২৩’ রিপোর্ট প্রকাশ করল এশিয়ান পেইন্টস

ঢাকা: এশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম পেইন্ট প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান এশিয়ান পেইন্টস একটি সমন্বিত রিপোর্ট প্রকাশের মাধ্যমে বাংলাদেশে ২০২৩ সালের ‘কালার অব দ্য ইয়ার’ ঘোষণা করেছে।

এ উপলক্ষে সম্প্রতি ঢাকায় হোটেল শেরাটনে এক জাঁকালো আয়োজনের মাধ্যমে ‘কালার নেক্সট-২০২৩’ অনুষ্ঠান উদযাপিত হয়।

 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এশিয়ান পেইন্টস গ্লোবালের রিজিওনাল হেড সিরিশ রাও। এ সময় এশিয়ান পেইন্টসের কান্ট্রি হেড বুধাদিত্য মুখার্জিসহ এশিয়ান পেইন্টসের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।  এছাড়া অনুষ্ঠানে যোগ দেন বাংলাদেশের খ্যাতনামা স্থপতি, ইন্টেরিয়র ডিজাইনার এবং অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।

‘কালার নেক্সট’ গ্রাহকদের রং ও রঙের উপাদান পছন্দ ও তাদের চাহিদা বুঝে নেওয়ার একটি প্রক্রিয়া এবং এতে এশিয়ান পেইন্টসের সঙ্গে যুক্ত থাকেন উপমহাদেশজুড়ে স্থপতি, ইন্টেরিয়র ডিজাইনার, শিল্পী, সমাজবিজ্ঞানী এবং অন্যান্য সংস্কৃতমনা ব্যক্তিরা, যারা এশিয়ান পেইন্টসকে উপমহাদেশের মধ্যে পরিবর্তিত সাংস্কৃতিক ও সামাজিক ল্যান্ডস্কেপ শনাক্ত করতে এবং সমসাময়িক ‘ট্রেন্ড’ খুঁজে পেতে সহযোগিতা করেন।

‘কালার নেক্সট’ মানুষের আবেগের সৃজনশীল প্রকাশ বলে মন্তব্য করেছেন এশিয়ান পেইন্টসের মারিশা রেগো ডি'সুজা।  

তিনি এবারের চারটি কালার ‘ট্রেন্ড’ ঘোষণা করেছেন- যা হলো গথেলিসিয়াস, যা প্রাচীন আচ্ছাদিত রঙের তীব্রতা প্রকাশ করে; শ্রুম, যা প্রাকৃতিক উপাদানের সব অপরূপ শক্তি ও দৃঢ়তার কথা মনে করিয়ে দেয়; এজ অব দ্য ফরেস্ট, যা আমাদের স্থায়িত্ব, বিস্ময় এবং আশার প্রয়োজনীয়তা প্রতিফলিত করে; এবং স্লিপ সেন্স যা শান্ত এবং স্থির অনুভূতির জন্য তৈরি করা হয়েছে। এ ট্রেন্ডের মাধ্যমে আমরা সামাজিক-সাংস্কৃতিক বিষয়গুলো, যেমন কীভাবে আমরা নিজেকে প্রকাশ করি- তা থেকে শুরু করে আমাদের কল্যাণের জন্য উপলব্ধ তাগিদ এবং অন্যদের ও আমাদের চারপাশের বিশ্বের সঙ্গে গভীর সংযোগ তৈরি করে। ‘সিলভার এসক্যাপেড’কে ২০২৩ সালের ‘কালার অব দ্য ইয়ার’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

এশিয়ান পেইন্টস গ্লোবালের রিজিওনাল হেড সিরিশ রাও বলেন, এশিয়ান পেইন্টস মানেই গ্রাহকদের ঘরকে সুন্দর করে তোলার প্রচেষ্টা। ধারাবাহিকভাবে মান-সম্পন্ন সল্যুশন দেওয়ার পাশাপাশি আমাদের ট্রেন্ডগুলোকে পুনরায় সংজ্ঞায়িত করতে এবং গ্রাহকদের তাদের স্বপ্নগুলো বাস্তবায়নে অনুপ্রেরণা দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

‘দ্য কালার নেক্সট-২০২৩ ম্যাটেরিয়ালস অ্যান্ড ইন্টেলিজেন্স রিপোর্ট’-এ এমন একটি প্রক্রিয়া দেখানো হয়েছে, যেখানে আপনি বর্তমান সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কাঠামোর নতুন ট্রেন্ডগুলো বুঝতে পারবেন। কালার নেক্সট-২০২৩ এর মাধ্যমে আমরা রং নির্বাচনের বিষয়ে ক্রমাগত পরিবর্তনগুলো বুঝতে ও কাজ করতে চেষ্টা করছি এবং সেই সঙ্গে চেয়েছি গ্রাহকদের জন্য ইতিবাচক ও প্রাণবন্ত রঙের সমাহার নিয়ে হাজির হতে।

তিনি আরও বলেন, আমরা আমাদের গ্রাহকদের জন্য আরো উন্নত পরিসরের পেইন্টিং সল্যুশন দেওয়ার জন্য ভবিষ্যতের ট্রেন্ডগুলো খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাব।  বাংলাদেশে ২০২১ সালে ‘কালার নেক্সট’ উদ্যোগটি যাত্রা শুরুর পর থেকে এশিয়ান পেইন্টসের আর্কিটেক্ট, ইন্টেরিয়ার ডিজাইনার কমিউনিটির (এআইডি) সদস্যদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। তারা এই ট্রেন্ডগুলো বুঝতে এবং ডিজাইন ও গৃহসজ্জায় (ডেকোর) তা বাস্তবায়িত করতে সাহায্য করেছেন।

এবার এশিয়ান পেইন্টস এর সঙ্গে অংশগ্রহণকারী প্রখ্যাত ব্যক্তিত্বরা হচ্ছেন- ‘ফোর ওয়ালস ইনসাইড আউটসাইড’র ওয়াহিদ আসিফ, ‘ইনসিগনিয়া স্টুডিও’-এর মেহেদি জামান, ‘সিনথেসিস আর্কিটেক্ট’র একেএম তানভীর হাসান নীরু। ‘কালার নেক্সট ২০২৩’ এর ‘ট্রেন্ড’ অ্যান্ড ‘ম্যাটেরিয়াল ইন্টেলিজেন্স’র বিশদ ব্যাখ্যায় অভিজ্ঞ এসব পেশাদাররা এ আয়োজনে সম্পৃক্ত থাকার পাশাপাশি তারা তাদের বৈশ্বিক অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করার মাধ্যমে এ সেক্টরে অগ্রণী ভূমিকা রেখে চলেছেন।  

মঙ্গলবার (৩০ মে) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৭ ঘণ্টা, মে ৩০, ২০২৩
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।