ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ চৈত্র ১৪৩০, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০২ শাওয়াল ১৪৪৫

ক্রিকেট

সিডনি টেস্টে চালকের আসনে অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৭, ২০২৩
সিডনি টেস্টে চালকের আসনে অস্ট্রেলিয়া

সেই দ্বিতীয় দিন থেকে ডাবল সেঞ্চুরির অপেক্ষায় বসেছিলেন উসমান খাজা। কিন্তু বেরসিক বৃষ্টি খাজাকে হতাশ করেই ছাড়ল।

ম্যাচের তৃতীয় দিনের পুরোটাই ভাসিয়ে নেওয়ার পর চতুর্থ দিনের প্রথম সেশনটিও কেড়ে নেয়। যার ফলে ৪৭৫ রানেই ইনিংস ঘোষণা দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় অস্ট্রেলিয়া। খাজাকেও তাই ১৯৫ রানে অপরাজিত থেকেই থামতে হয়।

সিডনিতে আজ বাকি দুই সেশনে দাপট চালকের আসনে রয়েছে স্বাগতিকরা। প্যাট কামিন্স ও জশ হ্যাজেলউডের তোপের মুখে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। দিনশেষ করে ৬ উইকেটে ১৪৯ রান নিয়ে। কামিন্স ৩টি ও হ্যাজেলউড নেন ২টি উইকেট।  

কন্ডিশনের সহায়তা নিয়ে পাঁজর তাক করে বোলিং করতে থাকেন কামিন্স-হ্যাজেলউড। ফলে ৩৭ রানেই তিন ব্যাটারকে হারায় প্রোটিয়ারা। টেম্বা বাভুমা ও হেইনিরিখ ক্লাসেন প্রতিরোধের চেষ্টা করলেও খুব বেশি দূর এগোতে পারেননি। মার্কো ইয়ানসেন ১০ রান ও সাইমন হারমার ৬ রান নিয়ে শেষ দিনের খেলা শুরু করবেন।

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের দৌড়ে এগিয়ে থাকতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ধবলধোলাইয়ের জন্য সবরকম রাস্তাই অবলম্বন করতে অস্ট্রেলিয়া। তাই চতুর্থ দিনে রান না বাড়িয়ে ফিল্ডিংয়ে নেমে পড়ে প্যাট কামিন্সের দল। খাজাকেও তাই অভাগার দলে নাম লেখাতে হয়। ১৯০ রানের পর ইনিংস ঘোষণার কারণে ডাবল সেঞ্চুরি করতে না পারার ঘটনা অবশ্য এবারই প্রথম নয়।  

২০০৪ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে মুলতান টেস্টে ১৯৪ রানে অপরাজিত ছিলেন শচীন টেন্ডুলকার। কিন্তু ঠিক তখনই ইনিংস ঘোষণা করেন ভারতের অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড়। ১৯৬০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৯৭ রানে অপরাজিত ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ কিংবদন্তি ফ্রাঙ্ক ওরেল। তাকে ডাবল সেঞ্চুরি করতে দেননি তৎকালীন ক্যারিবীয় অধিনায়ক গ্যারি আলেক্সান্দার।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৭, ২০২৩
এএইচএস
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।